সোমবার, ০৮ অগাস্ট ২০২২, ০৯:৪২ পূর্বাহ্ন
নোটিশ
যে সব জেলা, উপজেলায় প্রতিনিধি নেই সেখানে প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। বায়োডাটা সহ নিউজ পাঠান। Email: [email protected]

গাইবান্ধায় স্কুল ছাত্রী অপহরণের,১৫ ঘন্টা পর  উদ্ধার

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধা
Update : মঙ্গলবার, ১ মার্চ, ২০২২, ৫:৩০ অপরাহ্ন

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধাঃ গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর উপজেলার ধাপেরহাট থেকে ফিল্মী স্টাইলে কলেজ ছাত্রীকে অপহরন করে নিয়ে গেছে বখাটেরা। পুলিশ ১দিন পর অপহৃতা আয়শা সিদ্দিকা আখি আক্তার কে  উন্নত তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে রংপুর জেলার পীরগঞ্জ উপজেলার ৬নং টুকুরিয়া ইউনিয়ন থেকে উদ্ধার করেছেন, তবে ওই বখাটেদের এখন পর্যন্ত গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। ওই কলেজ ছাত্রী সহপাঠিদের সাথে প্রাইভেট পড়তে যাবার সময়  গতকাল রবিবার সকালে পথিমধ্যে ইসলামপুর তালের দিঘী নামক স্থান থেকে তার সহপাঠিদের মারপিট করে জোর পৃর্বক সাদা রংগের মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে গেছে কলেজ ছাত্রী আখি আক্তারকে।
এসময় আখি আক্তার ও তার সহপাঠিদের চিৎকারে লোকজন এগিয়ে এসেও বখাটেদের দাপটে কেউ কথা বলার সাহস পায়নি। ফিল্মী ষ্টাইলে ঐ কলেজ ছাত্রীকে তুলে নিয়ে গেছে পীরগঞ্জ উপজেলার বাজে কাসিমপুর গ্রামের মৃত: শাহাজাহান ডাক্তারের পুত্র বখাটে আরমান ও তার সঙ্গীরা। ওই কলেজ ছাত্রীর সহপাটিরা ৯৯৯ লাইনে ফোন দিলে সাথে সাথে পুলিশ ভিকটিম উদ্ধারে মাঠে নামেন। অবশেষে অপহরনের ১দিন পর আখি নিজ কৌশলে অপহরন কারীর হাত থেকে নিজেকে রক্ষা করতে পরিবারের লোকজনের কাছে ফোন দেয়। আখির পিতা পুলিশ সহ পীরগঞ্জের ৬নং টুকুরিয়া ইউনিয়ন পরিষদে গিয়ে নব নির্বাচিত চেয়ারম্যানের সহযোগিতায় তার কন্যাকে উদ্ধার করে। আখির পরিবার জানান, ২৭ ফেব্রুয়ারী রবিবার সকাল ৮ টার দিকে সাদুল্যাপুর উপজেলার ধাপেরহাট মোংলা পাড়া গ্রামের জনৈক্য শিক্ষকের কন্যা, কলেজ পড়ুয়া ছাত্রী প্রতিদিনের ন্যায় তার দু বান্ধবী সহ অটোভ্যান যোগে ধাপের হাট বন্দরে প্রাইভেট পড়ার উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেয়,পথিমধ্যে ইসলামপুর নামক স্থানে ফাঁকা রাস্তায় অপরিচিত দু’জন লোক মটর সাইকেল নিয়ে তাদের গতিরোধ করে, তাদের গতিবিধি সন্দেহজনক হলে অটোচালকের সাথে বাকবিতন্ডায় জড়িয়ে পরে। এসময় পিছন থেকে একটি সাদা রংগের মাইক্রোবাসে বখাটে আরমানসহ ৭/৮ জন যুবক এসে সহপাঠি/বান্ধবীদের মারপিট করে আখি কে জোরপৃর্বক মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে ধাপেরহাট অভিমুখে চলে যায়, ঘটনার প্রত্যাক্ষদর্শী আখির বান্ধবী জানান, আমরা সবাই চিল্লাচিল্লি করেছি আখি বাচাও বাচাও বলেছে অটোচালক অপহরনকারীদের বাধা দিয়েছে, কোন বাধায় কাজ হয়নি আমাদেরকে মার পিট করে ভয়ভীতি দেখিয়ে আখি কে তুলে নিয়ে গেছে। আমরা উপায়ন্তর না ৯৯৯ লাইনে ফোন করেছি, ততক্ষনে তারা আমাদের বান্ধবী কে তুলে নিয়ে চলে গেছে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে আখির অপর বান্ধবী জানান, আমাদের নিরাপত্তা কোথায়, এত লোকের সামনে প্রক্যাশে দিনে দুপুরে বখাটেরা আমাদের বান্ধবী কে তুলে নিয়ে গেলেও কেউ আমাদের রক্ষা করতে এগিয়ে আসেনি। আখির মা জানিয়েছেন পীরগঞ্জের আরমান আমার মেয়েকে অপহরন করেছে। ইতিপৃর্বেও ঐ বখাটে আরমান আমার মেয়েকে জিম্মী করে বিয়ের নাটক সাজিয়ে ছিলো অনেক কষ্টে আমার মেয়েকে সেখান থেকে মুক্ত করে এনে কলেজে ভর্তি করে দিয়েছি কিন্ত ঐ আরমান আবার পুনরায় এ ঘটনা ঘটিয়েছে। আমি তার বিচার চাই, তদন্তকারী অফিসার ধাপেরহাট পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের সু দক্ষ ইনচার্জ সেরাজুল হক জানান,  অপহরনের বিষয়টি জানার সাথে সাথেই উন্নত তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে আমরা তাদের অবস্হান সনাক্ত করতে সক্ষম হই, পুলিশি নজরদারী রাখি ঐ এলাকায়,সোমবার দুপুরে  ভিকটিম কে উদ্ধার করি এ সময় পুলিশের উপস্হিতী টের পেয়ে আসামীরা পালিয়ে যায়, পীরগঞ্জের টুকুরিয়া ইউনিয়ন পরিষদের পাশের একটি বাড়ী থেকে ভিকটিম কে উদ্ধার করা হয়।   ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতারের জোর তৎপরতা চালানো হচ্ছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
Theme Created By Uttoron Host