মঙ্গলবার, ০৯ অগাস্ট ২০২২, ০১:১৫ পূর্বাহ্ন
নোটিশ
যে সব জেলা, উপজেলায় প্রতিনিধি নেই সেখানে প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। বায়োডাটা সহ নিউজ পাঠান। Email: [email protected]

রাজারহাটে ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে স্কুল শিক্ষকের উপর সন্ত্রাসীদের হামলা

রকিবুল ইসলাম রুবেল, লালমনিরহাট
Update : শনিবার, ৮ জানুয়ারী, ২০২২, ৫:১৯ অপরাহ্ন

রাজারহাট রকিবুল ইসলাম রুবেলঃ কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলার সদর ইউনিয়নের ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নির্বাচন পরবর্তী পরাজিত প্রার্থীর ভাইয়ের উপর হামলা চালিয়েছেন সন্ত্রাসীরা।
স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, গত বুধবার ৫ জানুয়ারি বিকেল আনুমানিক ৪ ঘটিকায় রাজারহাট হাসপাতাল রোড রেলগেটের সামনে রাজারহাট সদর ইউনিয়নের মটর সাইকেল প্রতিকের পরাজিত প্রার্থী রহিম বাদশার বড় ভাই মকবুল মাস্টারকে নৌকা প্রতিকের বিজয়ী প্রার্থী এনামুল হকের কর্মী সমর্থকেরা দেশীয় অস্ত্র, রাম দা রড দিয়ে এলোপাতাড়ি আঘাত করলে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়ে জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। মকবুল মাস্টার জ্ঞান হারিয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে থাকলেও চিহ্নিত সন্ত্রাসীদের ভয়ে কেউ আহতকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার সাহস পাননি। পরে এই ঘটনা রাজারহাট থানা পুলিশ জানতে পেরে দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে আহত মকবুল মাস্টারকে উদ্ধার করে রাজারহাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে চিকিৎসা দেওয়ার ব্যবস্থা করেন।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক প্রত্যক্ষদর্শী বলেন মকবুল মাস্টার মটর সাইকেলে করে রাজারহাট থেকে পাশ্ববর্তী সিঙ্গের ডাবড়ীর হাট যাচ্ছিলেন। হঠাৎ কিছু মকবুল মাস্টারের উপর হামলা করে। পরে পুলিশ এসে আহত মকবুল হোসেন কে হাসপাতালে নিয়ে যান।
এঘটনা জানতে প্রতিবেদক রাজারহাট হাসপাতালে মকবুল মাস্টারের কাছে  যান,গুরুতর আহত অবস্থায় মকবুল মাস্টার হাসপাতালের বেডে কাতরাচ্ছিলেন।
প্রতিবেদকের প্রশ্নের জবাবে মকবুল মাস্টার বলেন আমার ছোট ভাই রহিম বাদশা গত ২৬শে ডিসেম্বর রাজারহাট ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে ভোট করে হেরে যান,আমি তার ভোট করায় বিজয়ী চেয়ারম্যান এনামুল হকের সন্ত্রাসী বাহিনী আকাশ, কোপা সোহেল, রিয়াজুল, মজিদুল, হৃদয় সহ আরও অনেকে আমার উপর অতর্কিত হামলা চালায়। আমি প্রশাসনের কাছে এই সন্ত্রাসীদের শাস্তি দাবি করছি।
এব্যাপারে রাজারহাট সদর ইউপির পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থী রহিম বাদশা বলেন নির্বাচন পরবর্তী এহেন ন্যাক্কারজনক হামলার তীব্র নিন্দা জানাই। সেই সাথে প্রশাসনের কঠোর হস্তক্ষেপ কামনা করছি। তবে এই বিষয় টা নিয়ে অনেকে ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের চেষ্টা করছেন। আর তাছাড়া যারা আমার ভাইয়ের উপর হামলা চালিয়েছেন তারা রাজারহাট উপজেলার চিহ্নিত সন্ত্রাসী এদের বিরুদ্ধে থানায় একাধিক মামলা রয়েছে।
এবিষয়ে রাজারহাট থানার অফিসার ইনচার্জ রাজু সরকার বলেন,ঘটনাটি সম্পর্কে আমরা জানি। তিনি আরও জানান মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। এখনি সবকিছু বলা যাচ্ছে না। মামলার পরবর্তীতে জানানো হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
Theme Created By Uttoron Host