রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:০৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম
ডেসটিনি-যুবক গ্রাহকগণ ০ থেকে ৬০ শতাংশ টাকা ফেরত পেতে পারেন বোয়ালমারীতে ব্রীজ থেকে লাফ দিয়ে নিখোঁজ হওয়া মাদ্রাসা ছাত্রের লাশ ২৪ ঘন্টা পর উদ্ধার ঝিনাইদহে ম্যাজিক কর্পোরেশন প্রাইভেট লিঃ’র নকল পণ্য নিয়ে প্রতারণা ঝুঁকিপূর্ণ শিশুশ্রমে নিয়োজিতদের জন্য শিশু শিক্ষাকেন্দ্র জিংক সমৃদ্ধ ধানের চাল বাণিজ্যিকীকরণ শীর্ষক মতবিনিময় সভা মহাদেবপুরে এক গৃহবধুকে ধর্ষন চেষ্টার অভিযোগে থানায় মামলা নড়াইলের কৃতি সন্তান বিশ্বখ্যাত নৃত্যশিল্পী উদয় শংকরে ৪৪ তম মৃত্যুবার্ষিক আজ  কুড়িগ্রামে বালু উত্তোলনে বাধাদিতে গিয়ে নিযার্তনের শিকার প্রধান শিক্ষক নড়াইলে ৫১৬ পিচ ইয়াবা ও ৪৪০০০ টাকা সহ ৩ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার বান্দরবানে শিক্ষার্থী ধর্ষণের অভিযোগে প্রধান শিক্ষক গ্রেপ্তার
নোটিশ
যে সব জেলা, উপজেলায় প্রতিনিধি নেই সেখানে প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। বায়োডাটা সহ নিউজ পাঠান। Email: [email protected]

চট্টগ্রামে ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে এক নারী আক্রান্ত

Reporter Name
Update : বুধবার, ২৮ জুলাই, ২০২১, ৮:৪৫ অপরাহ্ন

 নিউজ ডেস্ক:  চট্টগ্রামে প্রথমবারের মতো বিরল ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে আক্রান্ত হয়েছেন এক নারী। করোনা আক্রান্ত হয়ে সুস্থ হবার পর ষাটোর্ধ্ব ওই নারীর শরীরে ব্ল্যাক ফাঙ্গাস শনাক্ত হয়। বিরল ছত্রাকজনিত রোগটিতে আক্রান্ত হয়ে চার দিন ধরে তিনি চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ১৬ নং ওয়ার্ডে চিকিৎসা নিচ্ছেন বলে জানা গেছে।

এ বিষয়ে সিভিল সার্জন ডা. শেখ ফজলে রাব্বি বলেন, আমরা বিষয়টি জেনেছি। ওই নারীকে ১৬ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে। তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ঢাকার বার্ডেম হাসপাতালে পাঠানো হবে।

জানা যায়, গত ২৫ জুন থেকে জ্বরে আক্রান্ত হন ষাটোর্ধ্ব গৃহিনী ফেরদৌস বেগম। চলতি মাসের ৩ জুলাই তিনি কোভিড টেস্টে পজেটিভ হন। ১৫ জুলাই কোভিড নেগেটিভ হলেও তার নানা শারীরিক অসুবিধা দেখা দেয়। পরে স্বজনরা তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করান। সেখানে চিকিৎসকরা নানা পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে এই রোগী ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানান। নারীর স্বামী পাঁচদিন আগে করোনা পজেটিভ হয়ে মারা গেছেন। এখন তার সন্তানেরা চোখের জলে ছুটোছুটি করছেন ওষুধের জন্য।

রোগীর ছেলে মো. বেলাল হোসাইন বলেন, পাঁচদিন আগে আমি আব্বাকে হারিয়েছি। এখন আমার মা জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে। তার জন্য এমপোটেরিসিন-বি ইনজেকশনটি খুঁজছি। কিন্তু তা পাওয়া যাচ্ছে না। প্লিজ আপনারা এই ওষুধের সন্ধান দিন। যত টাকা লাগে আমরা দেব। আমার মাকে বাঁচাতে চাই।

বিরল এই রোগে আক্রান্তের সংখ্যা খুবই হাতেগোনা। তাই সরকারিভাবে আপাততইনজেকশন যোগান দেওয়া সম্ভব নয়। তবে রোগী বাড়লে সরকারি নির্দেশনা আসতে পারে বলে জানিয়েছেন সিভিল সার্জন।

চিকিৎসকরা বলছেন, খুব কাছাকাছি দীর্ঘ সময় ধরে সংস্পর্শে না গেলে এই রোগ সংক্রমণের ঝুঁকি কম। মূলত কোভিড আক্রান্তদের শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যাওয়ায় এই রোগে আক্রান্ত হবার আশঙ্কা বেশি। তবে শুরু থেকেই এই রোগে চিকিৎসা করা জরুরি।

চমেক হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের সাবেক বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ডা. আমির হোসাইন বলেন, এটা খুব দুর্লভ একটা রোগ। এই রোগের চিকিৎসাও ব্যয়বহুল। তবে কারো শ্বাস-প্রশ্বাসের মাধ্যমে এই রোগ আক্রান্ত হবার কথা নয়। যদি কেউ ক্লোজ কন্টাক্টে থাকে তাহলে তিনিও আক্রান্ত হতে পারেন।

সম্প্রতি ভারতে বিরল ছত্রাকজনিত এই রোগটি ছড়িয়ে পড়ার পর বাংলাদেশে এ নিয়ে উদ্বেগের মধ্যে দুজন আক্রান্ত হওয়ার কথা জানা যায়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Theme Created By Uttoron Host