রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৬:০৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম
ব্যবসায়ীরা রুপিতে ভারত থেকে পণ্য আমদানির সুযোগ চান ঝিনাইদহে এক স্কুল শিক্ষকের মৃত্যু নিয়ে রহস্য, স্বর্পদংশনে বলে প্রচার ঝিনাইদহে রেললাইন ও মেডিকেল কলেজ স্থাপনের দাবিতে মানববন্ধন পিরোজপুরে সংবাদ সম্মেলনে আ.লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মহিউদ্দিন মহারাজ মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহার করলেন  খুলনার গৃহবধূ  রহিমা ফরিদপুরের বোয়ালমারী থেকে জীবিত উদ্ধার কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরীর দুধকুমার নদ থেকে বালু উত্তোলনের প্রতিবাদে মানববন্ধন ও সমাবেশ যুক্তরাষ্ট্রের ডলারই সবচেয়ে বড় অস্ত্র পত্নীতলায় প্রতিবেশীর আঘাতে আহত ব্যক্তির মৃত্যু মহেশপুরের কোদলা নদীতে চলছে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলন কুড়িগ্রামের উলিপুরে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ঢুকে ব্যবসায়ীকে জখম করে টাকা লুট
নোটিশ
যে সব জেলা, উপজেলায় প্রতিনিধি নেই সেখানে প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। বায়োডাটা সহ নিউজ পাঠান। Email: [email protected]

শ্রীলঙ্কায় ফিরলেন গোতাবায়া রাজাপাকসে

Reporter Name
Update : শনিবার, ৩ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ৯:৫৭ পূর্বাহ্ন

গণবিক্ষোভের মুখে পালিয়ে যাওয়ার প্রায় দুই মাস পর শ্রীলঙ্কায় ফিরেছেন দেশটির সাবেক প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসে।স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের বরাত দিয়ে আল জাজিরা জানায়, শনিবার (৩ সেপ্টেম্বর) ভোরে থাইল্যান্ড থেকে সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে রাজধানী কলম্বোতে অবতরণ করেন ৭৩ বছর বয়সী শ্রীলঙ্কার সাবেক এই প্রেসিডেন্ট।

অস্থায়ী ভিসায় থাইল্যান্ডে অবস্থান করা রাজাপাকসে সিঙ্গাপুর হয়ে দেশে ফিরেছেন বলে নিশ্চিত করেছে স্থানীয় সংবাদমাধ্যগুলো। এদিকে এক প্রতিবেদনে বিবিসি জানায়, শ্রীলঙ্কার কয়েকজন মন্ত্রী বিমানবন্দরে গোতাবায়ার সঙ্গে দেখা করেছেন।

শ্রীলঙ্কায় চরম অর্থনৈতিক সংকট ঘিরে শুরু হওয়া বিক্ষোভের জেরে গত ১৩ জুলাই সামরিক বাহিনীর সহযোগিতায় দেশ ছেড়ে পালান গোতাবায়া রাজাপাকসে। প্রথম মালদ্বীপ এবং এরপর সেখান থেকে সিঙ্গাপুরে যান। সিঙ্গাপুরে গিয়ে পদত্যাগপত্র পাঠান গোতাবায়া।

প্রাথমিকভাবে গোতাবায়াকে ১৪ দিনের স্বল্পমেয়াদি ভিজিট পাস দেয় সিঙ্গাপুরের অভিবাসন কর্তৃপক্ষ। পরে তার ভিজিট পাসের মেয়াদ আরও ১৪ দিন বাড়ানো হয়। ১১ আগস্ট সেই পাসের মেয়াদ শেষ হলে থাইল্যান্ডের উদ্দেশে সিঙ্গাপুর ছাড়েন গোতাবায়া। এরপর থেকে থাইল্যান্ডেই ছিলেন তিনি।

গোতাবায়ার পদত্যাগের পর শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট হন দেশটির প্রবীণ রাজনীতিবিদ রনিল বিক্রমাসিংহে। বিবিসি বলছে, রাজাপাকসের প্রত্যাবর্তন নতুন সরকারের জন্য একটি সংবেদনশীল বিষয়। কারণ বিক্রমাসিংহের সরকার নতুন করে আর কোনো বিক্ষোভ চায় না। পাশাপাশি গোতাবায়ার নিরাপত্তাও নিশ্চিত করতে হবে সরকারকে।

যদিও জিবন্তা পেরিস নামে সরকারবিরোধী বিক্ষোভে অংশ নেয়া এক নেতা বিবিসিকে বলেছেন, আমরা রাজাপাকসের প্রত্যাবর্তনের বিরোধিতা করছি না। যে কোনো শ্রীলঙ্কার নাগরিক দেশে ফিরতে পারেন। দুর্নীতির কারণে তার (গোতাবায়া রাজাপাকসে) সরকারের বিরুদ্ধে মানুষ রাস্তায় নেমেছিল। কিন্তু তার সঙ্গে আমাদের কোনো ব্যক্তিগত শত্রুতা নেই।

তবে রাজনীতি বা সরকারে রাজাপাকসের পুনরায় যোগদানের যে কোনো প্রচেষ্টার বিরোধিতা করার কথা জানিয়েছেন অনেক বিক্ষোভকারী।

এদিকে দেশে ফেরার পর গোতাবায়া তার ব্যক্তিগত বাসভবনে ফিরেছেন নাকি তাকে অন্য কোথাও নিয়ে যাওয়া হয়েছে, সে বিষয়ে কিছু জানা যায়নি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
Theme Created By Uttoron Host