সোমবার, ১৫ অগাস্ট ২০২২, ০১:৪৫ অপরাহ্ন
নোটিশ
যে সব জেলা, উপজেলায় প্রতিনিধি নেই সেখানে প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। বায়োডাটা সহ নিউজ পাঠান। Email: [email protected]

শৈলকুপায় হাটে গরু আছে, ক্রেতা কম

রয়েল আহমেদ, শৈলকুপা (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি
Update : সোমবার, ৪ জুলাই, ২০২২, ৫:৩৬ অপরাহ্ন

রয়েল আহমেদ,শৈলকুপা (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি: ঈদের আর মাত্র পাঁচ দিন বাকি। ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার বিভিন্ন হাটে এবার গরুর আমদানি হলেও ক্রেতা কম। গরু বিক্রি না হওয়ায় খামারিরা হাট থেকে গরু ফেরত নিয়ে যাচ্ছেন।
উপজেলার দুধসর, হাবিবপুর, কাতলাগাড়ীসহ বিভিন্ন হাটে গিয়ে দেখা গেছে, হাটে প্রচুর গরু উঠেছে। বাঁশের খুঁটিতে বেঁধে রাখা হয়েছে গরু। কয়েকজন ক্রেতাকে দেখা গেল, ঘুরে ঘুরে গরু দেখছেন আর দরদাম করছেন। কিন্তু তাঁরা কিনতে নয়, দাম যাচাই করতে এসেছেন।
গরুর ব্যাপরি দুলাল বলেন, সপ্তাহে একদিন দিন সোম এ হাট বসে। গরুর সঙ্গে আসা খামারিরা মজুরির ভিত্তিতে দালাল কিংবা একশ্রেণির ভাড়া করা লোক নিয়োজিত করেন দরদাম করার জন্য। গরুর দরদাম হলে খামারি ও ক্রেতার কথা হয়। কিন্তু এবার হাটে ক্রেতা কম।
খামারিরা জানান, গত বছরের চেয়ে এ বছর পশুখাদ্যের দাম বেড়েছে। প্রতিটি গরুর পেছনে খাবার বাবদ প্রতিদিন কমপক্ষে ৪০০ থেকে৫০০ টাকা খরচ হচ্ছে। সেই সাথে গরু লালন পালনের খরচও বেড়ে গেছে। এ অবস্থায় দাম পাওয়া নিয়ে তাঁরা শঙ্কায় রয়েছেন। ঋণ নিয়ে তাঁরা যে পশুপালন করছেন, সে খরচ উঠবে কি না, তা নিয়ে দুশ্চিন্তায় রয়েছেন।
গরু বিক্রি করতে আসা খামারি নজরুল ইসলাম বলেন, হাটে দেশি জাতের আটটি গরু নিয়ে এসেছেন। এখন পর্যন্ত একটি গরুও বিক্রি হয়নি। উপরন্তু হাটে গরু তুলতে গিয়ে অনেক টাকাও খরচ হয়ে গেছে। ক্রেতা খুব কম। মনেই হচ্ছে না যে কোরবানির হাট।
উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তরের ভেটেনারী সার্জন ডাঃ মোঃ মামুন খান বলেন, শৈলকুপা উপজেলায় কোরবানির উপযোগী ৩৬৪৪৭ টি গরু রয়েছে। পশু হাট রয়েছে ৬টি। প্রতিনিয়ত আমরা হাটগুলো পরিদর্শন করছি এবং ক্রেতা-বিক্রেতাদের সাহায্যে এগিয়ে যাচ্ছি। বর্তমানে পশুখাদ্যের দাম বেশি হওয়ায় গরুর দাম কিছুটা বেশি । সেই সাথে বন্যাসহ বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্য্যগের কারনে ক্রেতা সমাগত কিছুটা কম।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
Theme Created By Uttoron Host