মঙ্গলবার, ০৯ অগাস্ট ২০২২, ০২:০১ পূর্বাহ্ন
নোটিশ
যে সব জেলা, উপজেলায় প্রতিনিধি নেই সেখানে প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। বায়োডাটা সহ নিউজ পাঠান। Email: [email protected]

রাশিয়ার তেল কিনছে ইউরোপ!

Reporter Name
Update : রবিবার, ২৬ জুন, ২০২২, ৬:১৪ অপরাহ্ন

এক মাসেরও কম সময় আগে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) রাশিয়ার তেল আমদানির ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপে সম্মত হয়েছিল। তবে এর সত্ত্বেও ইইউ রাশিয়া থেকে তেল কেনা আরও বাড়িয়েছে। গত দুই মাসের মধ্যে অপরিশোধিত তেল সরবরাহের পরিমাণ সর্বোচ্চ পর্যায়ে রয়েছে।

ইউরোপ রাশিয়া থেকে আমদানি করা অপরিশোধিত তেলের পরিমাণ বাড়িয়েছে। ট্যাঙ্কার ট্র্যাকিং ডাটা উদ্ধৃত করে ব্লুমবার্গের একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত সপ্তাহে ইউরোপের তেল পরিশোধনাগারগুলো প্রতিদিন গড়ে ১ দশমিক ৮৪ মিলিয়ন ব্যারেল রাশিয়ান অপরিশোধিত তেল ক্রয় করেছে। এতে টানা তৃতীয় সপ্তাহের মতো তেল ক্রয়ের পরিমাণ বেড়েছে। এটি প্রায় দুই মাসের মধ্যে তুরস্কসহ ইউরোপের সর্বোচ্চ ক্রয়।

মূলত রাশিয়ার বৃহত্তম তেল উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান লিটাস্কো এসএ তাদের ইতালি, রোমানিয়া এবং বুলগেরিয়ায় অবস্থিত পরিশোধনগারগুলোয় ব্যারেল পরিবহন করার পাশাপাশি তুরস্ক রাশিয়া থেকে তেল কেনার কারণে ইইউতে রুশ জ্বালানি সরবরাহের পরিমাণ বেড়েছে। এছাড়া তেল ক্রয় কমার যে প্রবণতা দেখা দিয়েছিল সেটিও হ্রাস পেয়েছে। ফলে রুশ তেল রফতানি বেড়ে গেছে।

যে সব কোম্পানিগুলো এবং দেশগুলো রাশিয়া থেকে তেল কিনতে ইচ্ছুক ছিল না তারা ইতোমধ্যেই পিছিয়ে গেছে। এ সুযোগে বাজারে অন্যান্য যারা তেল কিনতে আগ্রহী ছিলেন তারা তেল কেনা বাড়িয়ে দিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, ইইউ গত মাসে রাশিয়ান তেলের ওপর আংশিক নিষেধাজ্ঞা অনুমোদন করেছে। জোটটি আগামী বছরে মধ্যে সমস্ত আমদানির পরিমাণ ৯০ শতাংশে নামিয়ে আনার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। যার ফলে সমুদ্রপথ্যে আসা তেলের আমদানি বাধাপ্রাপ্ত হবে।

এদিকে ইউক্রেন সংঘাত শুরু হওয়ার পর কিছু প্রতিষ্ঠান অপরিশোধিত তেল ক্রয় বন্ধ করে দেয়ায় রাশিয়া বিপুল ছাড়ে তেল বিক্রি শুরু করে।

সাপ্তাহিক ট্র্যাকিং ডেটা শো অনুযায়ী, চীন এবং ভারত এখনও রাশিয়ান অপরিশোধিত তেলের সবচেয়ে বড় ক্রেতা।

এ ট্র্যাকিং চার্টটি রাশিয়ার রফতানি টার্মিনালগুলো থেকে অপরিশোধিত তেলের চালানের গন্তব্যস্থলগুলোর চার সপ্তাহের গড় দেখায়।
এশিয়ার চালানগুলোর বেশিরভাগই চীন ও ভারতে সরবরাহ করা হয়েছে। সমুদ্রপথের চালানে প্রতিদিন গড়ে প্রায় ১ মিলিয়ন ব্যারেল চীনে সরবরাহ করা হচ্ছে। এছাড়া ভারত রাশিয়ার সমুদ্রবাহিত অপরিশোধিত তেল রফতানির ত্রাণকর্তা হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে। ১৭ জুন পর্যন্ত গেল চার সপ্তাহে প্রতিদিন গড়ে ৬ লাখ ব্যারেলের বেশি পরিমাণ তেল ভারতে রফতানি করেছে রাশিয়া। বছরের শুরুতে যার পরিমাণ ছিল দিনে মাত্র ২৫ হাজার ব্যারেল।

সূত্র: ব্লুমবার্গ ও আরটি


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
Theme Created By Uttoron Host