বৃহস্পতিবার, ১৮ অগাস্ট ২০২২, ০২:২০ পূর্বাহ্ন
নোটিশ
যে সব জেলা, উপজেলায় প্রতিনিধি নেই সেখানে প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। বায়োডাটা সহ নিউজ পাঠান। Email: [email protected]

শৈলকুপায় মামলা করে বিপাকে সাংবাদিক ও তার পরিবার,বাড়ি ভাংচুর

Reporter Name
Update : বৃহস্পতিবার, ৪ মার্চ, ২০২১, ২:১২ পূর্বাহ্ন

এনায়েত হোসেন,শৈলকুপা(ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি : ঝিনাইদহের শৈলকুপায় জয়যাত্রা টেলিভিশনের সাংবাদিক মনিরুজ্জামান মনির অপহরণ ও হত্যাচেষ্টা মামলার বাদী হয়ে ক্রমেই নিরাপত্তাহীন হয়ে পড়েছে তার পরিবার। প্রতিদিন প্রকাশ্য হুমকির মুখে পড়ছে পরিবারটি। মামলা তুলে নিতে শুধু হুমকি নই, মঙ্গলবার রাতে কাঁচেরকোল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মামুন জোয়ার্দ্দার এর ইন্ধনে মাদ্রক সম্রাট,সন্ত্রাসী ডিস বাবু, জাহাঙ্গীর ও আশরাফুলসহ ২০/২৫ জন সাংবাদিক মনির এর বাড়িতে ঢুকে অতর্কিত হামলা চালায়। এসময় বাড়ীঘর ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটিয়েছে বলে অভিযোগ করেন।

অভিযোগ উঠেছে কোনরকম পুলিশি সহযোগিতা পাচ্ছেনা অসহায় পরিবারটি। মামলা তদন্তকারী কর্মকর্তা আসামী গ্রেফতার তো করেই না বরং বিশেষ সখ্যতা করে চলছে বলে বাদীর নানী সংরক্ষিত ইউপি সদস্য শুকজান বেগম অভিযোগ করেন।

সাংবাদিক মনিরুজ্জামান মনির জানায়, মাদক ব্যাবসীদের মাদক বিক্রি ও মাদক সেবনের ভিডিও ধারণ করে সংবাদ প্রকাশ করায়, ক্ষুব্ধ হয়ে গত ২ ফেব্রুয়ারী মঙ্গলবার রাতে কচুয়া বাজারের ব্রীজের উপর থেকে তাকে মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে হাত-পা ও চোখমুখ বেঁধে শারীরিক নির্যাতন করে। একপর্যায়ে জ্ঞানহীন হয়ে পড়লে তাকে মৃত ভেবে ডিসবাবু ও তার সহযোগীরা ফেলে যায় উপজেলার ধাওরা গ্রামের একটি রাস্তার পাশে। এঘটনার একদিন পর মনির নিজেই বাদী হয়ে শৈলকুপা থানায় ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে। ঘটনার ১ মাস পার হলেও গ্রেফতার করা হয়নি কোন আসামীদের বরং প্রকাশ্যে দিবালোকে আসামীরা ঘুরাঘুরি করছে। এছাড়াও ২ মার্চ মঙ্গলবার বিকেলে মনির এর নানা কাঁচেরকোল গ্রামের ডাবলু কে বাজারে একা পেয়ে একাধিক মামলার প্রধান আসামী ডিস বাবু ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী দেশীয় ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করতে গেলে স্থানীয়দের বাঁধায় কোন ভাবে রক্ষা পান তিনি। মনির আরো জানায়, মাদক সম্রাট ডিসবাবু তার সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে তার বাড়ীতে ভাংচুরসহ ৫৫ হাজার টাকা লুটপাট করে নেই। এসময় তার অন্তসত্বা সহধর্মিণী বাঁধা দিতে গেলে তাকে শারিরীক নির্যাতন করে। এঘটনায় কাঁচেরকোল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এড, সালাহ উদ্দিন জোয়ার্দ্দার মামুন বলেন, ডিস বাবু তার নিরাপত্তার জন্য অস্ত্র-সস্ত্র নিয়ে চলতেই পারে। বিষয়টি জানতে চাইলে তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই উত্তম কুমার জানান, শুনতে পাচ্ছি আসামীরা এলাকায় ঘোরাঘুরি করছে তবে গ্রেফতার করতে গেলে কাউকে পাচ্ছিনা। ইতিমধ্যে পরিবারের একাধিক সদস্যকে মারপিটসহ বাড়িঘরে হামলার ঘটনা ঘটেছে। এলাকার সচেতন মহল বলেন, আমরা সাধারন মানুষ চাই পুলিশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল থাক, ব্যক্তি বিশেষের দায়ভার গোটা প্রশাসনের উপর না পড়ুক। খুব দ্রুত আসামীদের গ্রেফতারের দাবী জানান তারা। বর্তমানে সাংবাদিক মনিরুজ্জামান মনির ও তাঁর পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। অসহায় পরিবারটি জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার ও র‌্যাবের হস্তক্ষেপ কামনা করেন। শৈলকুপা থানার ওসি (তদন্ত) মহসীস হোসেন বলেন, সাংবাদিকের বাড়ীতে ভাংচুরের ঘটনা তিনি শুনেছেন,লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ডিস বাবু ও তার সহযোগীদের গ্রেফতারে পুলিশ অভিযান অভিযান চালাচ্ছে। খুব শিঘ্রই তাকে গ্রেফতার করা হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
Theme Created By Uttoron Host