সোমবার, ০৮ অগাস্ট ২০২২, ০৩:৪১ অপরাহ্ন
নোটিশ
যে সব জেলা, উপজেলায় প্রতিনিধি নেই সেখানে প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। বায়োডাটা সহ নিউজ পাঠান। Email: [email protected]

‘সুইফট’ থেকে বাদ পড়ছে রাশিয়া

Reporter Name
Update : রবিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২২, ১:২২ অপরাহ্ন

আন্তর্জাতিক আর্থিক লেনদেন ব্যবস্থা ‘সুইফট’ থেকে রাশিয়ার কয়েকটি ব্যাংককে বিচ্ছিন্ন করার ব্যাপারে একমত হয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন, যুক্তরাষ্ট্র এবং তাদের মিত্র দেশগুলো।

ইউরোপিয় ইউনিয়ন জানিয়েছে, পুতিন সরকারের ঘনিষ্ঠ ব্যক্তিদের বিদেশে নাগরিকত্ব নেয়া ঠেকাতে তথাকথিত ‘গোল্ডেন পাসপোর্টের’ বিরুদ্ধেও কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

একটি দেশ থেকে আরেকটি দেশের ব্যাংকে আর্থিক লেনদেন করতে সুইফট ব্যবস্থা ব্যবহার করা হয়। তেল ও গ্যাস রপ্তানির মাধ্যমে রাশিয়া যে অর্থ আয় করে, সেই অর্থ আদায়ে দেশটি সুইফটের উপর ব্যাপকভাবে নির্ভরশীল।

জার্মান সরকারের একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন, রাশিয়ান এসব ব্যাংকে বৈদেশিক অর্থ লেনদেন বন্ধ করাই তাদের এই উদ্যোগের মুল উদ্দেশ্য।

কিন্তু রাশিয়ার সাথে ব্যবসা রয়েছে, এমন পশ্চিমা প্রতিষ্ঠানগুলোও এর ফলে ক্ষতির সম্মুখীন হতে পারে।

বেলজিয়াম ভিত্তিক সুইফট বিশ্বের এগারো হাজার আর্থিক প্রতিষ্ঠানের মধ্যে লেনদেনের মাধ্যম হিসেবে কাজ করে।

বিশ্বব্যাপী খুবই গুরুত্বপূর্ণ অর্থনৈতিক ভূমিকা রাখলেও কোন দেশের উপর অবরোধ আরোপের আইনি ক্ষমতা নেই প্রতিষ্ঠানটির।

ইউরোপিয়ান কমিশনের প্রেসিডেন্ট উরসুলা ফন ডার লেইন বলেছেন, রাশিয়া যাতে তার যুদ্ধকালীন অর্থ ভাণ্ডার ব্যবহার করতে না পারে, পশ্চিমা মিত্র দেশগুলো সে ব্যাপারেও কাজ করছে।

সেজন্য রাশিয়ার কেন্দ্রীয় ব্যাংক যাতে কোন সম্পদ বিক্রি করতে না পারে সেই ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। সেই সাথে ব্যাংকটির অন্যান্য আর্থিক লেনদেন বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

তিনি আরও জানিয়েছেন, তথাকথিত ‘গোল্ডেন পাসপোর্টের’ বিরুদ্ধেও কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। যাতে করে পুতিন সরকারের সাথে ঘনিষ্ঠ সম্পদশালী রাশিয়ানরা পশ্চিমা দেশগুলোতে নাগরিকত্ব নিয়ে সেখানকার আর্থিক ব্যবস্থায় প্রবেশ ও সুবিধা নেবার সুযোগ না প্রায়।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন এক টুইট বার্তায় বলেছেন, “পুতিন যাতে তার আগ্রাসনের মূল্য দেয় সেজন্য আমরা একসাথে কাজ করবো।”

এর প্রশংসা করে পাল্টা টুইট বার্তায় ইউক্রেনের প্রধানমন্ত্রী ডেনিস শ্মাল লিখেছেন, “অন্ধকার দিনে এটি হবে বড় সাহায্য’।

যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ইউরোপ, কানাডা এসব আর্থিক বিধিনিষেধ আরোপের ব্যাপারে একমত হয়েছে। সূত্র: বিবিসি


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
Theme Created By Uttoron Host