বৃহস্পতিবার, ১৮ অগাস্ট ২০২২, ০৯:৫৯ পূর্বাহ্ন
নোটিশ
যে সব জেলা, উপজেলায় প্রতিনিধি নেই সেখানে প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। বায়োডাটা সহ নিউজ পাঠান। Email: [email protected]

বেপরোয়া ডাম্পারট্রাক কেড়ে নিল ৪ ছাত্রের প্রাণ

পি কে অলোক
Update : রবিবার, ৯ জানুয়ারী, ২০২২, ৬:২৯ অপরাহ্ন

পি কে অলোক,ফকিরহাট: ইসলামিক বিষয়ে উচ্চশিক্ষা গ্রহন করা হলো না মাদ্রসা ছাত্র হাফেজ আব্দুল্লাহ এর শুধু আব্দুল্লাহ নয় একই সাথে স্বপ্নপুরন হলো না আঃ গফুর, সালাউদ্দিন ও হাফেজ সাকিব হাসানের। হ্যাঁ খুলনা-মংলা মহসড়কের বাগেরহাটের ফকিরহাটের টাউন নওয়াপাড়ার আলফা এগ্রো এক্রোসরীজ এর সামনে শনিবার গভীর রাতে ডাম্পারট্রাক-সিএনজি যানবাহনের মুখোমুখি সংঘর্ষে সিএনজি আরোহী চার মাদ্রসা ছাত্র নিহত হয়েছেন, এসময় সিএনজিতে থাকা আরো একজন গুরুত্বর আহত হয়েছেন। পুলিশ ঘাতক টাক ও তার চালককে আটক করতে পারেনী।
প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, শনিবার রাত সাড়ে বারোটার দিকে খুলনা হতে চুলকাটি গামী একটি সিএনজিতে করে ৫জন মাদ্রসা ছাত্র চুলকাটি এলাকার দিকে আসছিল। এসময় তারা টাউন নওয়াপাড়ার আলফা এগ্রো এক্রোসরীজ এর সামনে পৌঁছালে মংলা হতে খুলনাগামী বেপরোয়া গতীতে আসা একটি ডাম্পারট্রাক সিএনজিটিকে রং সাইডে গিয়ে মেরে দিলে সিএনজিটি দুমড়ে-মুচড়ে যায় এবং ঘটনা স্থানেই তার মধ্যে থাকা ৩ ছাত্র নিহত হন। খবর পেয়ে কাটাখালী হাইওয়ে থানা পুলিশ আহতদের মুমুর্য অবস্থায় উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। পরে রবিবার সকালে গুরুত্বর আহত হাফেজ সাকিবের অবস্থার অবনতি হলে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেওয়ার পথে মাওয়া ফেরীঘাটে দুপুর বারোটার দিকে তিনি মৃত্যু বরণ করেন।
নিহতরা হলেন, বাগেরহাট সদর উপজেলার রনজিৎপুর গ্রামের হোসেন আলীর পুত্র হাফেজ আব্দুল্লাহ (২৫),একই জেলার রামপাল উপজেলার ঝনঝনিয়া গ্রামের ফেরদাউস এর পুত্র আঃ গফুর (১৪), ফকিরহাট উপজেলার পিলজংগ গ্রামের (খাঁন ফিলিং ষ্টেশনের পিছনে) আবু-বক্কর শেখের পুত্র হাফেজ সাকিব হাসান (১৭),সাতক্ষীরা জেলার কালিগঞ্জ উপজেলার মালেখা গ্রামের আশরাফ এর পুত্র সালাউদ্দিন (১৭)। এবং আহত ব্যক্তি হলেন রামপালের বগুড়া গ্রামের টুটুল শেখের পুত্র হুসাইন (১৭)। তিনি বর্তমানে খুমেকে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। নিহত ও আহত সকলেই বাগেরহাট সদর উপজেলার হাকিমপুরে অবস্থিত আল জামিয়াতুল ইসলামিয়া হাকিমপুর মুহাঃ আলী শাহ্ দারুস সুন্নাহ্ মাদ্রাসার ছাত্র। তারা ঘটনার দিন রাতে খুলনা আলীয়া মাদ্রসায় একটি ইসলামিক অনুষ্ঠান থেকে মাদ্রাসায় ফেরার পথে এই মর্মান্তিক সড়ক দূর্ঘটনার কবলে পড়েন বলে মাদ্রাসাটির মোহাতামিম মাওঃ আলহাজ্ব আঃ মাবুদ জানান। মর্মান্তিক সড়ক দূর্ঘটানায় নিহত চার মাদ্রসা ছাত্র নিহত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে কাটাখালী হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহম্মাদ আলী বলেন, হাইওয়ে থানা পুলিশ দূর্ঘটনার খবর পেয়ে আহতদের উদ্ধার করে খুমেক হাসপাতালে প্রেরণ করেন। এবং নিহতদের লাশ গুলো উদ্ধার করে তাদের পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে। তবে এখনো ঘাতক ট্রাক বা তার চালককে আটক করা সম্ভব হয়নী, তবে আটকের জন্য জোর চেষ্টা চলছে। স্থানীয় এলাকাবাসি বলেছেন, খুলনা-মোংলা মহাসড়ক ভেঙ্গেচুরে মরণ ফাঁদে পরিনত হয়েছে। আর এই মরণ ফাঁদের কারণে এই সড়ক দুর্ঘটনাটি ঘটেছে।
একদিকে চার মাদ্রাসা ছাত্রের অকাল মৃত্যুতে সমগ্র এলাকা জুড়ে শোকের ছায়া নেমে এসেছে, গোটা এলাকায় বয়ছে সন্তান হারা বাবা-মার আত্মনাদ, সহপাঠি হারানোর বেদনা শিক্ষক সমাজে বয়ছে ছাত্র হারানোর বেদনা। এই ছাত্রদের অকাল মৃত্যুর ঘটনায় হাকিমপুর মাদ্রাসার দুইটি বিভাগ, হাকিমপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়,হাকিমপুর সামসুল হুদা মাধ্যমিক বিদ্যালয়সহ সবকয়টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে একদিনের জন্য পাঠদান ব›দ্ধ করে শোক পালন করছেন শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। এদিকে নিহত তিন ছাত্রের জানাযা নামাজ সকাল ১০টায় মাদ্রাসা মাঠে অনুষ্ঠিত হয়েছে। জানাযার নামাজে উপস্থিত ছিলেন, বাগেরহাট সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মুছাব্বেরুল ইসলামসহ বিভিন্ন স্তরের জনপ্রতিনিধি, শিক্ষক, সাংবাদিক, ছাত্রসমাজ ও বিভিন্ন মহলের প্রায় কয়েক হাজার মানুষ। পরে দুপুরে নিহত ছাত্রদের নিজ নিজ গ্রামের বাড়িতে পারিবারিক কবর স্থানে দাফন সম্পন্ন হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
Theme Created By Uttoron Host