সোমবার, ০৮ অগাস্ট ২০২২, ০১:০১ অপরাহ্ন
নোটিশ
যে সব জেলা, উপজেলায় প্রতিনিধি নেই সেখানে প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। বায়োডাটা সহ নিউজ পাঠান। Email: [email protected]

কুড়িগ্রামের উলিপুরে পুর্ণরায় নির্বাচনের দাবীতে নির্বাচন অফিস ঘেরাও

হাফিজ সেলিম, কুড়্রিগ্রাম
Update : বুধবার, ২৯ ডিসেম্বর, ২০২১, ৯:৪৮ অপরাহ্ন

কুড়িগ্রাম জেলা প্রতিনিধিঃ কুড়িগ্রামের উলিপুরে চতুর্থ ধাপের ইউপি নির্বাচনে একটি ইউনিয়নের দুটি ভোট কেন্দ্রের বাথরুম (টয়লেট) থেকে ব্যালট পেপার উদ্ধারের ঘটনায় মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার (২৯ ডিসেম্বর) বিকাল ৫টার দিকে ধামশ্রেনী ইউনিয়নের শত শত মানুষ সমাবেশ শেষে পুর্ণরায় নির্বাচনের দাবীতে উপজেলা নির্বাচন অফিস ঘেরাও করেন।
জানা গেছে, ২৬ ডিসেম্বর চতুর্থ ধাপের ইউপি নির্বাচনে উলিপুর উপজেলার ১৩টি ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। বিভিন্ন অনিয়ম ও ব্যালট পেপার ছিনতাইয়ের অভিযোগে ৪ ইউনিয়নের ভোট স্থগিত ঘোষনা করা হয়েছে। এদিকে নির্বাচনের তিনদিন পর বুধবার সকালে ধামশ্রেনী ইউনিয়নের দুটি ভোট কেন্দ্রের বাথরুম থেকে ব্যালট পেপার উদ্ধারের পর ওই ইউনিয়নের পরাজিত ৭ চেয়ারম্যান প্রার্থীসহ তাদের সমর্থকরা ক্ষোভে ফেটে পড়েন। ক্ষুব্ধ প্রার্থী ও সমর্থকরা বুধবার ওই ইউনিয়নে মানববন্ধন ও সমাবেশ শেষে বিক্ষোভ মিছিলসহকারে উপজেলা সদরে এসে নির্বাচন অফিস ঘেরাও করেন।
এ সময় নির্বাচনে পরাজিত প্রতিদ্বন্দ্ধীতাকারী নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী সিরাজুল হক সরদার, লাঙ্গল প্রতীকের প্রার্থী একরামুল হক মানিক, হাতপাখা প্রতীকের প্রার্থী আতিকুর রহমান, বর্তমান চেয়ারম্যান ও স্বতন্ত্র প্রার্থী রাখিবুল হাসান সরদার, মফিজল হক, কবীর উদ্দিন সরকার, জাকির হোসেন ও মাহবুব আলমসহ সংরক্ষিত ও সাধারণ সদস্য পদে প্রার্থীরা বক্তব্য রাখেন।
নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী সিরাজুল হক সরদার সমাবেশে বলেন, ধামশ্রেনী ইউনিয়নের নির্বাচনে রিটার্নিং অফিসার অযোগ্য প্রিজাইডিং অফিসারদের নিয়োগ দেন। তারা অর্থের বিনিময় ফলাফল পরিবর্তন করে দিয়েছে। রাত ১০ টা পর্যন্ত ভোট গণনার নামে কারচুপি করে তারাহুরো করে ফলাফল ঘোষনা করে প্রশাসনের মাধ্যমে কেন্দ্র ত্যাগ করেন।
বর্তমান চেয়ারম্যান ও স্বতন্ত্র প্রার্থী রাখিবুল হাসান সরদার বলেন, নির্বাচন কমিশন এখন টয়লেটে। দুটি কেন্দ্রের টয়লেট থেকে পাঁচশতাধিক ব্যালট পেপার উদ্ধার হয়েছে। এই ইউনিয়নের ভোটকেন্দ্রের প্রতিটি টয়লেটে খোঁজ করলে আরও ব্যালট পাওয়া যাবে। প্রিজাইডিং অফিসাররা অনৈতিক সুবিধা নিয়ে ফলাফল পাল্টে দিয়েছে। সে কারনে আমরা সকল প্রার্থী পুননির্বাচনের দাবী করছি।
এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও ধামশ্রেনী ইউনিয়নের রিটার্নিং অফিসার আহসান হাবীবের সাথে মুঠোফোনে বার বার যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তার ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
Theme Created By Uttoron Host