বৃহস্পতিবার, ১৮ অগাস্ট ২০২২, ০২:১২ পূর্বাহ্ন
নোটিশ
যে সব জেলা, উপজেলায় প্রতিনিধি নেই সেখানে প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। বায়োডাটা সহ নিউজ পাঠান। Email: [email protected]

উত্তর কোরিয়া কে-পপ শোনায় ৭ জনের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করেছে

Reporter Name
Update : শুক্রবার, ১৭ ডিসেম্বর, ২০২১, ৪:৫৬ অপরাহ্ন

নিউজ ডেস্ক: কে-পপ ভিডিও দেখা ও শেয়ারের জন্য গত এক দশকে অন্তত ৭ জনের মৃত্যুদ- কার্যকর করেছে উত্তর কোরিয়া। সম্প্রতি একটি মানবাধিকার সংস্থার রিপোর্টে এই তথ্য দেয়া হয়েছে। ২০১৫ সালের পর থেকে উত্তর কোরিয়া থেকে পালিয়ে আসাদের সাক্ষাৎকার নিয়ে যাচ্ছে ওই সংস্থাটি। প্রায় ৬৩৮ জনের সাক্ষাৎকার নেয়ার পর তারা এই মৃত্যুদ-ের বিষয়ে নিশ্চিত হয়েছে। কোথায় কোথায় মৃত্যুদ-গুলো কার্যকর করা হয়েছে তা নিয়েও কাজ করছে ট্রান্সিশনাল জাস্টিস ওয়ার্কিং গ্রুপ বা টিজেডব্লিউজি।
দক্ষিণ কোরিয়া ভিত্তিক সংস্থাটি মূলত উত্তর কোরিয়ায় মৃত্যুদ- কার্যকর হওয়ার ঘটনাগুলোর সমন্বয় করছে। এতেই দেখা গেছে, অন্তত ৭ জনের মৃত্যুদ- কার্যকর হয়েছে শুধুমাত্র দক্ষিণ কোরিয়ার গান শোনা বা অন্যকে দেয়ার কারণে। অপরাধের মধ্যে রয়েছে দক্ষিণ কোরিয়ার গান, সিনেমা ও টিভি সিরিজ সিডি বা ইএসবি ড্রাইভের মাধ্যমে উত্তর কোরিয়ার মধ্যে বিক্রি।

যদিও এই মৃত্যুদ-গুলোর ৬টিই কার্যকর হয়েছে ২০১২ থেকে ২০১৪ সালের মধ্যে। যাদেরকে মৃত্যুদ- দেয়া হয়েছে তার পরিবারকেও সেই দৃশ্য দেখতে বাধ্য করা হয়েছে। সকলের জন্য সতর্ক বার্তা হিসাবে জোর করে মানুষদের লাইনে দাড়া করিয়ে মৃত্যুদ- কার্যকর করা হয়েছে।
কিম জন উন প্রথম থেকেই দক্ষিণ কোরিয়ার মিডিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছেন। তার দাবি, এসব সিনেমা বা গান উত্তর কোরিয়ার মানুষদের চিন্তাকে ‘দূষিত’ করে তুলবে। তাই এসবের বিরুদ্ধে কঠিনতম অবস্থান গ্রহণ করেছেন তিনি। যদিও ২০১৮ সাল দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে শান্তি আলোচনা চলার সময় একাধিক কে-পপ ব্যান্ডকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন কিম জং উন। সেসময় চো ইয়ং পিল, লি সুন-হি, ইয়ুন দো-হিয়ুন, বায়েক জি-ইয়ুং এবং রেড ভেলভেট ব্যান্ড উত্তর কোরিয়ায় গিয়ে দুই ঘন্টা পারফর্ম করেছিল। তবে দুই দেশের মধ্যে সম্পর্ক আবার তলানিতে গিয়েই পৌঁছেছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
Theme Created By Uttoron Host