সোমবার, ০৮ অগাস্ট ২০২২, ০২:১৮ অপরাহ্ন
নোটিশ
যে সব জেলা, উপজেলায় প্রতিনিধি নেই সেখানে প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। বায়োডাটা সহ নিউজ পাঠান। Email: [email protected]

বাগেরহাটে ২টি কাচা পাকা রাস্তা এখন সম্পূর্ণ চলাচলের অযোগ্য

পি কে অলোক
Update : সোমবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০২১, ৮:২৫ অপরাহ্ন

পি কে অলোক,ফকিরহাট: বাগেরহাট সদরের খাঁনপুর ও ফকিরহাটের শুভদিয়া এবং বেতাগা ইউনিয়নের উপর দিয়ে নির্মিত ব্রিটিশ আমলে নির্মিত দুইটি গুরুত্বপূর্ণ ও জনবহুল কাচা-পাকা রাস্তা এখন সম্পূর্ণ চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে। এই গুরুত্বপূর্ণ রাস্তা দিয়ে প্রত্যান্ত গ্রামাঞ্চলের হাজার হাজার পথচারী চলাচল করলেও মেরামত বা সংস্কার না করায় রাস্তা দুইটি তার পুরাতন ঐতিহ্য হারাতে বসেছে। অতিদ্রুত রাস্তা দুইটি মেরামত করা না হলে তা বিলিন হয়ে যাওয়ার আশাংকা রয়েছে।
জানা গেছে, ফকিরহাটের বেতাগা ইউনিয়নের বেতাগা পশু হাসপাতাল অথাৎ ভেড়ার খামার এর সামনে দিয়ে এই রাস্তাটি হৃষিপাড়া চৌরাস্তার মোড় হতে সোজা শুভদিয়া ইউনিয়নের ঘনশ্যামপুর ¯ু‹লের পাশে তেমাথায় গিয়ে মিশেছে। এই রাস্তাটি ব্রিটিশ আমলে তৈরী করা হয়েছিল। যা ১২ফুট চওড়া এবং প্রায় ৩ কিলোমিটার দৈর্ঘ। এইটি রাস্তাটি সম্পূর্ণ মাটি দিয়ে তৈরী এবং বেতাগা ৫নং ওয়ার্ডবাসিসহ বিভিন্ন জনসাধারন চলাচল করে থাকেন। ব্রিটিশ আমলে এই রাস্তা দিয়ে লখপুর পিলজংগ বেতাগা ও শুভদিয়া ইউনিয়নের লোকজন চুলকাটি বাজারে অসা-যাওয়ার একমাত্র পথ ছিল। কিন্তু পার্শ্ববর্তী সাইডে বেশ কয়েকটি নতুন রাস্তা নির্মাণ করার কারণে এই রাস্তাটির উপর তেমন কোন নজর নেই কারোর।
স্থানীয়রা বলেছেন,স্বাধীনতার পর খানপুর বেতাগা লখপুর শুভদিয়া অঞ্চলের অধিকাংশ জনগন এই পুরাতন রাস্তাটি ব্যাবহার করতো। কিন্তু কালক্রমে রাস্তাটি মেরামত বা সংস্কার না করায় রাস্তাটির দুইপার্শ্বে শতশত ভুমিদস্যুরা তা দখল করে নিয়েছেন। যে করণে রাস্তাটি ছোট হয়ে পড়েছে। শুধু তাই নয়, রাস্তার পার্শ্বে বসবাসকারী এক শ্রেনীর ব্যাক্তিরা রাস্তার মাটি কেটে সেখানে নিজেদের জমি বানিয়ে গাছপালা লাগিয়ে ভোগদখল করে নিয়েছেন। রেকর্ডীয় এই রাস্তাটি ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে হলে মেরামত করা জরুরী হয়ে পড়েছে।
অপর দিকে চুলকাটি বাজারের মধ্যদিয়ে পুরাতন পুলিশ ফাঁড়ি পর্যন্ত প্রায় আধা কিলোমিটার একটি কাচা রাস্তা রয়েছে। যে রাস্তাটি ব্রিটিশ আমলে নির্মাণ করা হয়েছিল। সেই রাস্তাটি স্বাধীনতার পর স্থানীয় সরকার প্রকৌশলী অধিদপ্তর কয়েক দফায় ইটের সলিং নির্মাণ করলেও তা ভেঙ্গে চুরে এখন তা কাচা রাস্তায় পরিনত হয়েছে। এই রাস্তাটি দিয়ে চুলকাটি মুসলিমা দাখিল মাদ্রাসা ও চুলকাটি পলাশ কিন্ডার গার্ডেন স্কুলের শতশত শিক্ষার্থীরা চলাচল করে আসলেও সংস্কার বা মেরামতের কোন উদ্যোগ গ্রহন করা হচ্ছেনা। যে কারণে রোদ বৃষ্টি ঝড়ে শতশত মানুষ চরম জনদুভোগের মধ্যে এই কাচা রাস্তা দিয়ে চলাচল করতে বাধ্য হচ্ছেন। অতিদ্রুত জনবহুল ও গুরুত্বপূর্ণ এই ব্রিটিশ আমলে নির্মিত দুইটি রাস্তা পূণঃ নির্মাণ করার জন্য উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
Theme Created By Uttoron Host