রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:০৯ অপরাহ্ন
নোটিশ
যে সব জেলা, উপজেলায় প্রতিনিধি নেই সেখানে প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। বায়োডাটা সহ নিউজ পাঠান। Email: [email protected]

ফকিরহাটে চাঁদা না দেয়ায় মৎস্য ঘেরে হামলা ভাংচুর ও লুট

পি কে অলোক
Update : শনিবার, ১১ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৮:০৩ অপরাহ্ন

ফকিরহাট প্রতিনিধি: বাগেরহাটের ফকিরহাটে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী কর্তৃক একজন মৎস্য চাষির কাছে তিনলক্ষ টাকা চাঁদা না পেয়ে তাঁর মৎস্য ঘেরে হামলা ভাংচুর লুটপাট চালিয়ে ব্যাপক ক্ষতি সাধন করা হয়েছে। ভুক্তভোগীরা বাঁধা দিতে আসলে সন্ত্রাসীরা মহিলাদেরকে বেধড়ক মারপিট করে গুরুত্বর জখম করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে শুভদিয়া ইউনিয়নের ঘনশ্যামপুর গ্রামে গত (১০সেপ্টেম্বর) শুক্রবার দুুপরে। এঘটনায় তিনি জীবনের নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। চুলকাটি প্রেসক্লাব মিলনায়তনে শনিবার বিকালে এক সংবাদ সম্মেলনে এমনী অভিযোগ করেন, ঘনশ্যামপুর গ্রামের মরহুম আলহাজ্ব রুস্তম আলী ফকির এর পুত্র মোঃ কামাল হোসেন ফকির। তিনি তার লিখিত অভিযোগে বলেন, ঘনশ্যামপুর গ্রামে তার তিনটি মৎস্য খামার রয়েছে। সেই মৎস্য খামারে মাছ চাষ করে যা উপার্জন হয়, তাই দিয়ে তিনি জীবিকা নির্বাহ করে থাকেন। এমন সময় ঘনশ্যামপুর গ্রামের মুজিবর শেখ এর পুত্র মোঃ হুমাউন শেখ, শামছুর রহমান ফকির এর পুত্র কতুব উদ্দিন ফকির, মোঃ মুরাদ শেখ এর পুত্র রহিম শেখ, হুমাউন শেখ এর পুত্র তামিম শেখ সহ ৭/৮জন ব্যাক্তি তার কাছে তিনলক্ষ টাকা চাদা দাবী করে। চাদার টাকা দিতে অস্বিকার করায় ঘটনার দিন গত ১০সেপ্টেম্বর দুুপুরে তার মৎস্য ঘেরের বেড়া ভেঙ্গে সন্ত্রাসীরা ভিতরে প্রবেশ করে ঘরে থাকা ২৫বস্তা ডাউল, সয়াবিন খৈল ১৫বস্তা, ভাসমান ফিড ২০বস্তা সহ জাল ও অনান্য মালামাল লুটপাট করে নিয়ে যায়। এসময় সন্ত্রাসীরা আমার ঘেরের পাড়ে থাকা সবজি গাছ দা দিয়ে কেটে তাহার ক্ষতি সাধন করা ছাড়াও ঘেরের বিপুল পরিমানে মাছ লুট করে নিয়ে যায়। এসময় তার স্ত্রী মনজিলা বেগম, ছোট বোন মনোয়ারা বেগম বাধা দিতে গেলে তাদেরকেও বেধড়ক মারপিট করা হয় বলেও তিনি অভিযোগ করেন। তিনি আরো বলেন আমি গ্রামবাসিকে খবর দিলে তারা ছুটে আসলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। পরে গ্রামবাসিরা আহতদের মুমুর্য অবস্থায় উদ্ধার করে চুলকাটি বাজার স্থানীয় ভাবে চিকিৎসা গ্রহন করে। এখন সন্ত্রাসীরা আমাকে জীবননাশের হুমকি প্রদান করছে। এঘটনায় তিনি জীবনের নিরাপত্তা হীনতার ভুগছেন। সংবাদ সম্মেলনে তার সাথে আরো উপস্থিত ছিলেন, মোঃ আসলাম শেখ ও মোঃ ফরহাদ হোসেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Theme Created By Uttoron Host