শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ১০:৪৬ অপরাহ্ন
নোটিশ
যে সব জেলা, উপজেলায় প্রতিনিধি নেই সেখানে প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। বায়োডাটা সহ নিউজ পাঠান। Email: newssonarbangla@gmail.com

পলাশবাড়িতে পুত্রের বিরুদ্ধে মায়ের প্রতারণা মামলা

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি
Update : বৃহস্পতিবার, ২৬ মে, ২০২২, ১:৪০ অপরাহ্ন

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধা: গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ি উপজেলার ঢোলভাঙ্গা সংলগ্ন ঝালিঙ্গী গ্রামে পিতার অসুস্থতার কারণে জ্ঞানশূন্যতার সুযোগে পুত্র কর্তৃক সাড়ে ৬ বিঘা জমি হেবা দলিল মূলে নিজ নামে লিখে নিয়ে পিতা-মাতাকে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেয়ার চাঞ্চল্যকর অভিযোগ পাওয়া গেছে।
অভিযোগে জানা যায়, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সাবেক স্বাস্থ্য মন্ত্রী মরহুম মোহাম্মদ নাসিম এর আপন মামাতো ভাই ও উল্লেখিত ঝালিঙ্গী গ্রামের মৃত আজিম উদ্দিন সরকারের পুত্র মাহবুব ইসলাম দীর্ঘদিন থেকে বার্ধক্য জনিত রোগে ভুগছেন। কিন্তু এই বৃদ্ধ বয়সে একমাত্র অবাধ্য সন্তান হাসানুর রহমান পিতা মাহবুব ইসলামকে প্রায়ই শারীরিক ও মানসিক ভাবে নির্যাতন করতো। ফলে হাসানুর রহমান ত্যাজ্য ছেলের ন্যায় পিতার সমস্ত স্থাবর অস্থাবর সম্পত্তি থেকে বঞ্চিত হওয়ার আশঙ্কা করছিল।
এদিকে, মাহবুব ইসলামের অসুস্থতায় জ্ঞানশূন্যতার সুযোগে পুত্র হাসানুর রহমান প্রতারনার মাধ্যমে ১০/১২ বছর আগে কয়েক দিনের ব্যবধানে ৩/৪টি হেবা দলিল মূলে সমস্ত স্থাবর সম্পত্তি নিজ নামে লিখে নেয়। পরে পুনরায় ওই জমি হাসানুর রহমান তার স্ত্রী ও সাতারপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা উম্মে মাহাবুবা খানম ওরফে সোমা এর নামে দলিল মূলে লিখে দিয়ে দলিল সম্পাদনের কাহিনী গোপন করে রাখে। সম্প্রতি উল্লেখিত হেবা দলিলের কাহিনী ফাঁস হলে হাসানুর রহমানের তিন বোনসহ পিতা মাহবুব ইসলাম ও মাতা হাসনা বেগমের মনোমালিন্য শুরু হয়। তাদের সাথে পুত্র ও পুত্রবধূর বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ে পুত্র ও পুত্রবধূ মিলে মাহবুব ইসলাম ও হাসনা বেগমকে গলা ধাক্কা দিয়ে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেয়। এসময় মাহবুব ইসলামকে পুত্রবধূ উম্মে মাহবুবা ওরফে সোমা মাথা ঠেকিয়ে জোরে ধাক্কা দিয়ে আঘাত করলে হাড় ভাঙ্গা রক্তাক্ত গুরুতর জখম হলে সংশ্লিষ্ট হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়।  নিরুপায় হয়ে মাহবুব ইসলামের স্ত্রী হাসনা বেগম বাদী হয়ে পুত্র হাসানুর রহমান ও পুত্রবধূ উম্মে মাহবুবা খানম ওরফে সোমাকে আসামীর করে জমি উদ্ধারসহ ন্যায় বিচারের দাবিতে পলাশবাড়ি বিজ্ঞ আমলী আদালতে মামলা দায়ের করেন। যার নম্বর সি আর ৩৬/২০২২।
সুত্র জানায়, সংশ্লিষ্ট আদালতে মামলা দায়ের করার খবর পেয়ে পুত্র ও পুত্রবধূ আরো ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে এবং তারা বিভিন্ন হুমকি ধামকি দিয়ে আসায় মাহবুব ইসলাম নিজে বাদী হয়ে উল্লেখিত পুত্র ও পুত্রবধূকে আসামীর করে পলাশবাড়ি থানায় আরো একটি সাধারণ ডায়েরি করেন, যার নং ৭০১, তারিখ- ১৭/০২/২০২২ ইং।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Theme Created By Uttoron Host