শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:৩৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম
বজ্রপাতে ডুমুরিয়ায় গাভীসহ যুবকের মৃত্যু শৈলকুপায় সদ্য প্রয়াত এমপি আব্দুল হাই স্মরণে দোয়া মাহফিল ও শোক সভা অনুষ্ঠিত পিরোজপুরে ১৬০ টাকায় পুলিশে চাকরি পাচ্ছেন ২৮ জন নদীর জায়গা দখল করে শৈলকুপার যুবলীগ নেতা শামীম মোল্লার ইটভাটা ও পুকুর খনন প্রাথমিকের বদলির অনলাইন আবেদন শনিবার ৩০ মার্চ থেকেআগামী ১ এপ্রিল পর্যন্ত জাহাজ মালিকরা আর্মস গার্ড নিচ্ছেন রাজৈর উপজেলা প্রেসক্লাবের আয়োজনে ইফতার পার্টি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত পিরোজপুরে পৃথক দুটি মামলায় কিশোর গ্যাং এর ১৮ জনকে গ্রেফতার : অস্ত্র ও টাকা উদ্ধার পিরোজপুরে ডিবির অভিযানে আন্তজেলা পেশাদার মোটরসাইকেল চোর ও সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামী গ্রেফতার ঝিনাইদহে ভর্তুকি মুল্যে টিসিবি’র পণ্য বিক্রি শুরু
নোটিশ
যে সব জেলা, উপজেলায় প্রতিনিধি নেই সেখানে প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। বায়োডাটা সহ নিউজ পাঠান। Email: newssonarbangla@gmail.com

পুলিশের উপর হামলায় ইউপি চেয়ারম্যানসহ অর্ধশতাধিক ব্যক্তির নামে মামলা

সনত চক্রবর্ত্তী,ফরিদপুর প্রতিনিধি
Update : রবিবার, ৬ জুন, ২০২১, ৪:২০ পূর্বাহ্ন

সনত চক্রবর্ত্তী,  ফরিদপুর : ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গায় দুই পুলিশকে  মেরে হাতকড়াসহ মো. বরকত (২১) নামের এক যুবক পালানোর ঘটনায় এক ইউপি চেয়ারম্যানসহ অর্ধশতাধিক ব্যক্তির নামে মামলা করেছে পুলিশ। তবে ঘটনার ২৪ ঘণ্টার পরও হাতকড়াসহ পালানো ওই যুবককে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

শনিবার (৫ জুন) সকালে আলফাডাঙ্গা থানার উপপরিদর্শক (এসআই) প্রশান্ত কুমার বাদী হয়ে উপজেলার ৬নং পাঁচুড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান এস এম মিজানুর রহমানসহ ৪৪ জনের নাম উল্লেখ করে ও অজ্ঞাত ১০০-১২০ জনকে আসামি করে এ মামলাটি দায়ের করেন। মামলা নম্বর ৩। এ ঘটনায় আটজনকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

গ্রেফতাররা হলেন-উপজেলার ধুলজুড়ি গ্রামের জামাল সর্দার, আরব সর্দার, ইবাদত সর্দার, জাহাফতাব শেখ, হাচান শেখ, লুলু মোল্যা, মাছুম শেখ ও মহসীন শেখ। আলফাডাঙ্গা উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা জালাল উদ্দিন আহাম্মেদকে আটক করার পর ছেড়ে দেয়া হয়।

এজাহার সূত্রে জানা যায়, গ্রাম্য আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ৬নং পাঁচুড়িয়া ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান এস এম মিজানুর রহমান ও আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ওই ইউনিয়নের সম্ভাব্য ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী খালিদ মোশাররফ রঞ্জুর মধ্যে বিভিন্ন সময় সংঘর্ষ ও মারামারির ঘটনা ঘটে আসছে। সম্প্রতি এনিয়ে দু’পক্ষই থানায় পাল্টাপাল্টি মামলা করে। মামলায় উভয়পক্ষ আদালত থেকে জামিন নিয়ে এলাকায় আসে। শুক্রবার (৪ জুন) সন্ধ্যায় ইউনিয়নের ধুলজুড়ি গ্রামের বেড়িরহাট বাজারে দু’পক্ষ পুনরায় সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে থানা পুলিশ সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করে। এসময় উভয়পক্ষের ইটপাটকেলের আঘাতে এসআই মঞ্জুর হোসেন ও এএসআই মো. জামাল উদ্দিন আহত হন।

তবে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শুক্রবার সন্ধ্যায় আলফাডাঙ্গা থানার এসআই মঞ্জুর হোসেন ও এএসআই জামাল উদ্দিন বেড়িরহাট বাজারে গিয়ে ধুলজুড়ি গ্রামের বরকত নামের এক যুবকের এক হাতে হাতকড়া দেন। তখন বরকত আরেক হাত দিয়ে এসআই মঞ্জুরকে ঘুষি দেন। ওই সময় এএসআই জামালউদ্দিন ওই যুবককে ধরতে এগিয়ে গেলে তাকেও তখন হাতকড়া পরা হাত দিয়ে আঘাত করে ওই যুবক পালিয়ে যান।

এ বিষয়ে পাঁচুড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান এস এম মিজানুর রহমান বলেন, শুক্রবার বেড়িরহাট বাজারে দু’পক্ষের এরকম কোনো সংঘর্ষের ঘটনা আমার জানা নেই। আমি কয়েকদিন ধরে এলাকায় ছিলাম না। ব্যবসায়িক কাজে ঢাকায় আছি। হাতকড়া নিয়ে পালানো যুবক আমার সমর্থকও নয়। এ ঘটনার সঙ্গে আমার কোনো ধরনের সম্পৃক্ততাও নেই।

অপরপক্ষের নেতা সম্ভাব্য ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী খালিদ মোশাররফ রঞ্জু বলেন, এরকম কোনো সংঘর্ষ শুক্রবার বেড়িরহাট বাজারে ঘটেনি। কিন্তু আমি জানতে পারলাম আমাকেও নাকি এই মামলার আসামি করা হয়েছে।

আলফাডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার দায়িত্বে থাকা এসআই মিজানুর রহমান জানান, দুই পক্ষের সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণে আনতে গিয়ে দুই পুলিশ সদস্য আহত হওয়ার ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। এ ঘটনায় আটজনকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। বাকি আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বরকত ওই গ্রামের বাসিন্দা ও বেড়ির হাট উচ্চ বিদ্যালএর প্রধান শিক্ষক মঞ্জুর হোসেন ওরফে মঞ্জু মাস্টারের ছেলে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Theme Created By Uttoron Host