বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:৪৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
নোটিশ
যে সব জেলা, উপজেলায় প্রতিনিধি নেই সেখানে প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। বায়োডাটা সহ নিউজ পাঠান। Email: newssonarbangla@gmail.com

ঘূর্ণিঝড় ইয়াস এর প্রভাবে পিরোজপুরে মাছ ও ফসলের ক্ষতির আশংকা

Reporter Name
Update : বুধবার, ২৬ মে, ২০২১, ৩:৩৭ অপরাহ্ন

পিরোজপুরপ্রতিনিধি : ঘূর্ণিঝড়ইয়াসএর প্রভাবে পিরোজপুরের বিভিন্ন উপজেলার কয়েকশত গ্রাম প্লাবিত হয়েকয়েক কোটিটাকারমাছ ও ফসলেরক্ষাতহয়েছে।বুধবারসকাল থেকে বৃষ্টির সাথে সাথে জেয়ারেরপানিবৃদ্ধি পেয়েপ্লাবিতহতে থাকেমঠবাড়িয়া, মাঝেরচর, বড়মাছুয়া, সাপলেজা, মিরুখালী, তুষখালী, ভান্ডারিয়াউপজেলার তেলীখালী, ইন্দুরকানী, কাউখালীউপজেলারআমড়াজুড়ি, সোনাকুরসহকয়েকশতাধিকগ্রাম।

স্থানীয়রাজানায় গত কালরাত থেকেই বৃষ্টির সাথে সাথে পানিবৃদ্ধি পেলেরাতেএবংআজসকালেনদীরতীরবর্তীএলাকা গুলোতলিয়ে গেছে। তবেএতে সবচেয়ে বেশিক্ষাতিগ্রস্তহয়েছেমাছচাষী ও কৃষকরা। সাধঅরণমানুষদের শুধুবাড়িঘরপ্লাবিতহলেওমাছচাষী ও কৃষকদের কয়েক কোটিটাকারসাদামাছরুই, কাতল, মৃগেল, তেলাপিয়া, পাঙ্গাশ সহবিভিন্নমাছ জোয়ারেরপানিতে ভেসে গেছে। এতে কৃষকরাঅনেক বেশিক্ষতিগ্রস্তহওয়ারআশংকারয়েছে। এছাড়াওপানিরচাপে ভেঙ্গে গেছে রাস্তা ও ভেরীবাধ।

জেলা কৃষিসম্প্রসারণঅধিদপ্তরের উপ-পরিচালকচিন্ময়রায়জানান, জেলাতে ১৫ হাজার হেক্টরজমিতেআউশধানএরচাষকরাহয়েছে। ভজনইরি, আব্দুলহাই, বিরি ৪৮ এ তিনটিজাতেরধঅনচাষকরাহয়েছে। ধান ক্ষেতপ্লাবিতহলেও এ জাতেরধানপানিসহ্য করে থাকতেপাওেতাইক্ষতিরআশংকা কম হবেবলেধারনাকরাযাচ্ছে। তবেমঠবাড়িয়াসহকয়েকটিজায়গায় ৫ হেক্টরজমিতেমুগরয়েছে। এ ৫ হেক্টরজমিতেমুগএরব্যাপকক্ষতিহয়েছে।

জেলামৎস্য কর্মকর্তাআব্দুলবারীজানান, জেলার ৭টি উপজেলায়কয়েক কোটিটাকারমাছএরক্ষতিহবেবলেধারণাকরাযাচ্ছে। তবেসাদামাছেরবসচেয়ে বেশিক্ষতিহবেবলেধারণাকরাযাচ্ছে। কারন কৃষকরাসাদামাছরুই, কাতল, মৃগেল, তেলাপিয়া, পাঙ্গাশ বেশিচাষ কওে থাকে। এছাড়াও দেশিওমাছেরও বেশক্ষতিহবেবলেধারণাকরাযাচ্ছে।

জেলাত্রান ও পূর্নবাসনকর্মকর্তা মোজাহারুলহকজানান, পিরোজপুরেঘূর্ণিঝড়ইয়াস মোকাবেলায় ৫৫৭ টিআশ্রয় কেন্দ্র প্রস্ততরাখাহয়েছে। করোনামহামারী ও ঘূর্ণিঝড়ইয়াস মোকাবেলায় জেলার ৫৩ টিইউনিয়নে ১ কোটি ৩২ লাখ ৫৩ হাজারটাকা অর্থ সহায়তা দেয়া হয়েছে। প্রতিটিইউনিয়নে ২ লাখ ৫০হাজার টাকাকরেসহায়তার চেক আজকেরইতুলে দিয়েছি।

পিরোজপুরের জেলাপ্রশাসক ও জেলা দুর্যোগব্যবস্থাপনাকমিটিরসভাপতিআবুআলী মো. সাজ্জাদ হোসেনজানান, ঘূর্ণিঝড়ইয়াসএরপ্রভাবেনিন্মচাপ ও চন্দ্রগ্রহনেরকারনেকঁচা, বলেশ্বর, সন্ধ্যা, কালিগঙ্গা নদীরপানি বেড়েযাওয়ায়অনেকএলাকাপ্লাবিতহয়েছে।তবেএখনপানিবিপদসীমারনিদিয়েপ্রবাহিতহচ্ছে।আমরাক্ষতিগ্রস্তপরিবারেরমধ্যে প্রধানমন্ত্রীরসহায়তারত্রাণ পৌঁছে দিয়েছি। আমাদেরত্রাণসহায়তাকার্যক্রম অব্যহত থাকবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Theme Created By Uttoron Host