বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৩:০৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম
ঢাকার ৪ সরকারি হাসপাতালে র‍্যাবের অভিযান শৈলকুপায় এম পি হাই এর রোগমুক্তি কামনায় আসাফো’র দোয়া মাহফিল ঝিনাইদহে অস্ত্র মামলায় সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যানের ১৭ বছর জেল পিরোজপুরে মহিলা আওয়ামীলীগের ৫৫ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত ঝিনাইদহ জেলা কারাগারে ১৪বছরের দন্ডপ্রাপ্ত কয়েদির মৃত্যু আদিতমারী উপজেলা সমবায় অফিসার ফজলে এলাহীর সততা ও নিষ্ঠার প্রতীক মাদারীপুর পুটিয়া গ্রামে নির্বাচনী মতবিনিময় সভায় শাজাহান খান এমপি লালমনিরহাটে সাংবাদিক মিজানের ৪৭ তম জন্ম বার্ষিকী উদযাপন হাসপাতাল বন্ধ, ২ চিকিৎসক গ্রেফতার ঝিনাইদহ-১আসনের সংসদ সদস্য আব্দুল হাই এমপির রোগমুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল
নোটিশ
যে সব জেলা, উপজেলায় প্রতিনিধি নেই সেখানে প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। বায়োডাটা সহ নিউজ পাঠান। Email: newssonarbangla@gmail.com

কুড়িগ্রামে ব্রহ্মপুত্র ও ধরলায় পানি বৃদ্ধি অব্যাহত

হাফিজ সেলিম,কুড়িগ্রাম
Update : শনিবার, ২৮ আগস্ট, ২০২১, ১:১৯ অপরাহ্ন

কুড়িগ্রাম জেলা প্রতিনিধিঃ কুড়িগ্রামে নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। আজ শুক্রবার বিকাল ৬ টা পর্যন্ত ব্রহ্মপুত্র নদের পানি  চিলমারী পয়েন্টে বিপদসীমার ১১ সেন্টিমিটার ও ধরলা নদীর ব্রীজ পয়েন্টে ২৪ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে বয়ে যাচ্ছে। পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির ক্রমেই অবনতি হচ্ছে।
এদিকে, দুধকুমার ও তিস্তার পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকলেও তা এখনো বিপদসীমার নীচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে ।
ফলে জেলার উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া নদ-নদী  অববাহিকার বিস্তীর্ণ নতুন -নতুন এলাকা প্লাবিত হয়েছে । এসব এলাকায় সদ্য রোপন করা আমন ধানের চারা সম্পূর্ণ পানির নিচে তলিয়ে গেছে। তা ছাড়াও  বিভিন্ন সবজি ক্ষেতের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। অতিবৃষ্টি ও পানিতে ডুবে থাকায় গ্রামীন কাচ সড়কের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। ফলে গ্রামগঞ্জের মানুষজন নিদারুণ কষ্টের মুখে পড়েছে ।  নদী তীরবর্তী নিচু এলাকার বেশ কিছু মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার যাত্রাপুর ইউনিয়নের চর যাত্রাপুর এলাকার সামছুল আলম জানান, ব্রহ্মপুত্রের পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। তবে এখনও ঘর-বাড়িতে পানি উঠেনি। এভাবে পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকে তাহলে চরাঞ্চলের ঘর-বাড়িতে দ্রুত পানি ঢুকে পড়বে।
অন্যদিকে, খরস্রোতা তিস্তা নদীর ভাঙ্গন তীব্র আকার ধারণ করছে। প্রতিনিয়ত নতুন নতুন এলাকা নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যাচ্ছে। এ অবস্থায় নদীর পারের অসহায় মানুষ বসতভিটা হারিয়ে নিঃস্ব হচ্ছে।
কুড়িগ্রাম পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী  আরিফুল ইসলাম জানান, ব্রহ্মপুত্র নদের উজানে ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে ভারি বৃষ্টিপাতের কারনে ব্রহ্মপুত্র ও ধরলার পানি বৃদ্ধি পেয়ে বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। আগামী দু’একদিনের মধ্যে ধরলার পানি কমতে শুরু করবে। তবে ব্রহ্মপুত্রের পানি আরো বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Theme Created By Uttoron Host