শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ১২:৩৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
নোটিশ
যে সব জেলা, উপজেলায় প্রতিনিধি নেই সেখানে প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। বায়োডাটা সহ নিউজ পাঠান। Email: newssonarbangla@gmail.com

ঈদের ছুটি বাড়ানো হলো

Reporter Name
Update : সোমবার, ১৯ জুন, ২০২৩, ৪:৪৬ অপরাহ্ন

পবিত্র ঈদুল আজহার তিন দিনের ছুটির সঙ্গে আরও একদিন বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

সোমবার (১৯ জুন) সকালে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠকে ঈদের ছুটি একদিন বাড়ানোর অনুমোদন দেয়া হয়। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

ঈদের ছুটি বাড়ল

মন্ত্রিসভা সম্মতি দেয়ায় ঈদে একদিন ছুটি বাড়ল, অর্থাৎ আগামী ২৭ জুন (মঙ্গলবার) থেকে ঈদের ছুটি শুরু হবে। সে ক্ষেত্রে ঈদে টানা পাঁচদিনের ছুটি পাচ্ছেন সরকারি কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা। গত ঈদুল ফিতরেও একদিন ছুটি বাড়িয়েছিল সরকার।

এর আগে গত মঙ্গলবার (১৩ জুন) সচিবালয়ে আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি ঈদের ছুটি একদিন বাড়ানোর সুপারিশ করে। সভাশেষে এ তথ্য জানান আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির সভাপতি ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতিও ঈদের ছুটি একদিন বাড়ানোর সুপারিশ করে।
 
মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী জানান, আগামী ২৯ জুন ঈদুল আজহার ছুটি ধরে ২৭ তারিখ থেকে ঈদের ছুটি দিতে সুপারিশ করেছে আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি।
এদিকে জিলহজ মাসের চাঁদ দেখতে সন্ধ্যায় জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমের ইসলামিক ফাউন্ডেশন সভাকক্ষে বৈঠকে বসছে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটি। চাঁদ দেখা সাপেক্ষ আগামী ২৯ জুন অথবা ৩০ জুন সারা দেশে ঈদুল আজহা উদ্‌যাপিত হবে।
 
অন্যদিকে সৌদি আরবের আকাশে রোববার (১৮ জুন) পবিত্র জিলহজ মাসের চাঁদ দেখা গেছে। ফলে আগামী ২৮ জুন (বুধবার) দেশটিতে পবিত্র ঈদুল আজহা উদ্‌যাপিত হবে।
 
সৌদির চাঁদ দেখা কমিটির বরাতে মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম খালিজ টাইমস জানায়, জিলহজ মাসের চাঁদ উঠায় আগামী ২৭ জুন সৌদিতে পবিত্র আরাফাহ দিবস (হজ) এবং ২৮ জুন ঈদুল আজহা (কোরবানি) উদ্‌যাপিত হবে।
 
এর আগে পবিত্র ঈদুল আজহা উদ্‌যাপনের তারিখ ঘোষণা করে মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া ও ব্রুনাই। রোববার চাঁদ দেখা যায়নি বলে এসব দেশে ২৯ জুন (বৃহস্পতিবার) কোরবানির ঈদ উদ্‌যাপন করা হবে।
 
চাঁদ দেখা সাপেক্ষে ইসলামের ১২ মাসের সূচনা হয়। জিলহজ মাসের চাঁদ দেখার মাধ্যমে হজ ও পবিত্র ঈদুল আজহা কবে উদ্‌যাপন করা হবে তা নির্ধারণ করা হয়। সেই অনুযায়ী, ঈদুল আজহার প্রথম দিন জিলহজ মাসের ১০ম দিনে পড়ে। আর পবিত্র আরাফাহ দিবস পালন করা হয় জিলহজ মাসের ৯ম দিনে।
 
ঈদুল আজহা মুসলমানদের দ্বিতীয় বৃহত্তম উৎসব এবং ত্যাগের উৎসব। ঈদুল আজহায় বিশ্বব্যাপী মুসলমানরা পশু কোরবানি দেন। এছাড়া আরাফাহর দিন হজ পালনকারী মুসলমানরা মক্কার বাইরে অবস্থিত আরাফাতের ময়দানে সমবেত হন।
 
আরবি চান্দ্র বর্ষপঞ্জিকা অনুযায়ী, জিলহজ মাসের ১০ তারিখ ঈদুল আজহা বা কোরবানির ঈদ উদ্‌যাপন করেন মুসলমানরা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Theme Created By Uttoron Host