সোমবার, ১৫ অগাস্ট ২০২২, ০১:৫৬ অপরাহ্ন
নোটিশ
যে সব জেলা, উপজেলায় প্রতিনিধি নেই সেখানে প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হবে। বায়োডাটা সহ নিউজ পাঠান। Email: [email protected]

কুড়িগ্রামের রৌমারী খাদ্য গুদামে নিম্নমানের চাল ঢোকানোয় গুদাম কর্মকর্তা বরখাস্ত

হাফিজ সেলিম, কুড়্রিগ্রাম
Update : শনিবার, ২২ জানুয়ারী, ২০২২, ৩:৫৫ অপরাহ্ন

কুড়িগ্রাম জেলা প্রতিনিধিঃ কুড়িগ্রামের রৌমারীতে সরকারি খাদ্য গুদামে রাতের আধারে  নিম্নমানের চাল ঢোকানোর অভিযোগে গুদাম কর্মকর্তা মোর্শেদ আলমকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।
বৃহস্পতিবার রংপুরস্থ আঞ্চলিক খাদ্য নিয়ন্ত্রক তাকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করেন এবং পার্শ্ববর্তী রাজিবপুর উপজেলা খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবু বকর সিদ্দিককে রৌমারী খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হিসেবে   অতিরিক্ত দায়িত্ব প্রদান করেন।
বৃহস্পতিবার রাতে ওই আদেশের কপি সংশ্লিষ্ঠ বিভাগের অফিসিয়াল ই-মেইলে পেয়েছেন বলে নিশ্চিত করেন রৌমারীর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা  আল ইমরান। নিবার্হী কর্মকর্তা জানান, মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে কুড়িগ্রাম  সদর উপজেলা খাদ্য গুদাম থেকে পাঠানো ভালো চাল গুদামে না ঢুকিয়ে তার পরিবর্তে স্থানীয় মিলারদের কাছ থেকে খাবার অযোগ্য চাল গোডাউনে ঢোকানো হচ্ছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে খাদ্য গুদাম সিলগালা করা হয়। এছাড়া বুধবার দুপুরের দিকে ৩ সদস্য বিশিষ্ট বিভাগীয় তদন্ত কমিটি সরেজমিন তদন্ত করে অভিযোগের সত্যতা পান। এরই প্রেক্ষিতে ভারপ্রাপ্ত খাদ্য গুদাম কর্মকর্তা মোর্শেদ আলমকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে ৩০ কেজি ওজনের ১৭৩ বস্তা খাবার অযোগ্য চাল গুদামে ঢোকানোর সময় বাইরে আরও ৭৭ বস্তা চাল গুদামে ঢোকানোর  অপেক্ষায় ছিল বলে একাধিক প্রত্যক্ষদর্শী জানান  । এ খবর পাওয়ার পর ঘটনাস্থলে গিয়ে গুদামে ঢোকানো ১৭৩ বস্তা চালসহ আগে থেকে রক্ষিত ১৯ মেট্রিক টন চালসহ ১ নম্বর গুদাম সিলগালা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহি অফিসার আলএমরান। সিলগালা করার পর বাইরে থাকা ৭৭ বস্তা চাল সশস্ত্র আনসারের প্রহরায় রাখা হয়। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, ভিজিডিসহ বিভিন্ন কর্মসূচি’র উপকারভোগীদের মধ্যে বিতরণের জন্য জেলা সদর খাদ্য গুদাম থেকে ৩০০ মেট্রিক টন চাল রৌমারী উপজেলা খাদ্য গুদামে পাঠানোর পরিবহন কর্মসূচি দেওয়া হয়। এই কর্মসূচি’র আওতায় জেলা সদর থেকে দু’দিন আগে ১৫৪ মেট্রিক টন চাল রৌমারীতে পাঠানোর জন্য ছাড় করা হয়। কিন্তু ওই চাল গুদামে না ঢুকিয়ে রাতের অন্ধকারে স্থানীয় মিলারের কাছ থেকে খাবার অযোগ্য চাল গুদামে ঢোকানো হয়।
সাময়িকভাবে বরখাস্তকৃত রৌমারী খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোর্শেদ আলম জানান,তাকে  সাময়িকভাবে বরখাস্তের কথা শুনেছেন তবে চিঠি পাননি বলে জানান।
রৌমারী খাদ্য গুদামের অতিরিক্ত দায়িত্ব পাওয়া রাজিবপুর উপজেলার খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবু বক্কর ছিদ্দিক জানান, অতিরিক্ত দায়িত্ব আমাকে দেওয়া হয়েছে। দায়িত্ব বুঝে নেওয়ার প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে।
এ প্রসঙ্গে রংপুরস্থ আঞ্চলিক খাদ্য নিয়ন্ত্রক মো: আব্দুস সালাম জানান, ৩ সদস্য বিশিষ্ট কমিটির তদন্ত প্রতিবেদনে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যাওয়ায় রৌমারী উপজেলার খাদ্য গুদাম কর্মকর্তা মোর্শেদ আলমকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। এখন আইনানুযায়ী তার বিরুদ্ধে অন্যান্য বিভাগীয় ব্যবস্থা প্রহণের প্রক্রিয়া চলছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
Theme Created By Uttoron Host