Monday, October 21, 2019, 12:58 am

সংবাদ শিরোনাম :
জাতিসংঘের ৭৪তম অধিবেশনে যোগ দিতে নিউইয়র্কে প্রধানমন্ত্রী ‘তথ্য-প্রমাণ পেলে সম্রাটের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা’ যুক্তরাষ্ট্রকে বাড়াবাড়ি না করতে ইরানের হুঁশিয়ারি কুষ্টিয়া সদর থানা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মিজু আটক লতা মঙ্গেশকরের গানে বাঁশি বাজিয়ে ভাইরাল তরুণী অবৈধ জুয়ার আড্ডা বা ক্যাসিনো চলতে দেয়া হবে না: ডিএমপি কমিশনার যুবলীগ নেতা খালেদের বিরুদ্ধে ৩ মামলা, গুলশান থানায় হস্তান্তর ১০ টাকার টিকিট কেটে চোখ দেখালেন প্রধানমন্ত্রী এ বছরে প্রায় ৮ কোটি টাকার রাজস্ব আদায় করেছে ঝিনাইদহ বিআরটিএ ঝিনাইদহে গুলিবিদ্ধ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার, মাদক উদ্ধার সড়ক দুর্ঘটনা থেকে বাঁচার উপায় -মোঃ সালাহউদ্দিন, পুলিশ পরিদর্শক জামালপুরের সেই ডিসি ওএসডি হলেন

পারমাণবিক স্থাপনায় পরিদর্শকদের যেতে দিতে রাজি উন

উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উন দেশটির ইয়ংবিয়নে অবস্থিত প্রধান পারমাণবিক স্থাপনা পরিদর্শনের অনুমতি দেওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন। জ্যেষ্ঠ কূটনৈতিক সূত্রের বরাত দিয়ে দক্ষিণ কোরিয়ার ইয়নহেপ বার্তা সংস্থা গতকাল মঙ্গলবার এ তথ্য জানিয়েছে। সূত্রের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে জানানো হয়, গত সেপ্টেম্বরে দক্ষিণ কোরিয়ার নেতা মুন জে-ইনের সঙ্গে বৈঠকে কিম বলেছিলেন, যুক্তরাষ্ট্র যদি যথাযথ ব্যবস্থা নেয়, তাহলে তাঁর দেশ শুধু ইয়ংবিয়ন পারমাণবিক স্থাপনা বন্ধই করবে না, পর্যবেক্ষকদের তা ঘুরে দেখার অনুমতিও দেবে। ওই মাসেই জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগ দিতে নিউইয়র্কে গিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গে করা বৈঠকে মুন জে-ইন এই বার্তা পৌঁছে দেন।

পারমাণবিক স্থাপনায় পরিদর্শকদের যেতে দিতে রাজি উন
ফাইল ছবি

উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উন দেশটির ইয়ংবিয়নে অবস্থিত প্রধান পারমাণবিক স্থাপনা পরিদর্শনের অনুমতি দেওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন। জ্যেষ্ঠ কূটনৈতিক সূত্রের বরাত দিয়ে দক্ষিণ কোরিয়ার ইয়নহেপ বার্তা সংস্থা গতকাল মঙ্গলবার এ তথ্য জানিয়েছে।

সূত্রের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে জানানো হয়, গত সেপ্টেম্বরে দক্ষিণ কোরিয়ার নেতা মুন জে-ইনের সঙ্গে বৈঠকে কিম বলেছিলেন, যুক্তরাষ্ট্র যদি যথাযথ ব্যবস্থা নেয়, তাহলে তাঁর দেশ শুধু ইয়ংবিয়ন পারমাণবিক স্থাপনা বন্ধই করবে না, পর্যবেক্ষকদের তা ঘুরে দেখার অনুমতিও দেবে। ওই মাসেই জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগ দিতে নিউইয়র্কে গিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গে করা বৈঠকে মুন জে-ইন এই বার্তা পৌঁছে দেন।

উত্তর কোরিয়ার নেতার এমন সিদ্ধান্তের বিষয়ে জানতে চাইলে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র বিভাগের মুখপাত্র হিথার নরেত বলেন, ‘এমন কোনো সিদ্ধান্তের বিষয়ে আমরা অবগত নই। সম্প্রতি মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেওর সঙ্গে বৈঠকে কিম পর্যবেক্ষণের অনুমোদন দেওয়ার ব্যাপারে সম্মত হন। কিম তাঁর প্রতিশ্রুতি রক্ষা করবেন, আমরা এখন সে আশাই করছি।’ তবে এই মুখপাত্রের কথা থেকে এটা স্পষ্ট নয় যে কিম ইয়ংবিয়ন পারমাণবিক স্থাপনা পরিদর্শনের অনুমতি দেওয়ার বিষয়ে সম্মত হয়েছিলেন কি না।

ছয় দশকের বেশি সময় আগের কোরীয় যুদ্ধের সমাপ্তি ঘটিয়ে শান্তিচুক্তিতে পৌঁছাতে চায় যুক্তরাষ্ট্র ও উত্তর কোরিয়া। এ ব্যাপারে দেশ দুটির প্রতি সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া। এই শান্তিচুক্তি হলে সরাসরি লাভবান হবে দক্ষিণ কোরিয়া, প্রশস্ত হবে উত্তর কোরিয়া ও দক্ষিণ কোরিয়ার স্বাভাবিক সম্পর্কের পথ।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন অথবা রেজিস্টার করুন

© All rights reserved © 2018 Newssonarbangla