Templates by BIGtheme NET
ব্রেকিং নিউজ ❯
Home / জাতীয় / সাগরদাঁড়ি প্রস’ত সপ্তাহব্যাপী মধুমেলা শনিবার

সাগরদাঁড়ি প্রস’ত সপ্তাহব্যাপী মধুমেলা শনিবার

আ.শ.ম. এহসানুল হোসেন তাইফুর, কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি: শনিবার থেকে সাগরদাঁড়ির কপোতাক্ষ নদ পাড় দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের মধুভক্ত লাখ লাখ মানুষের উপসি’তিতে মুখরিত হয়ে উঠবে। মহাকবি মাইকেল মধুসূদন দত্তের ১৯৪ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে মধুমেলার জন্য প্রস’ত সাগরদাঁড়ি। যশোরের কেশবপুরের সাগরদাঁড়িতে উৎসবে মেতে উঠবে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের মানুষ। সপ্তাহব্যাপী মধুমেলা উপলক্ষে কবির জন্মভূমির স্মৃতি বিজড়িত কপোতাক্ষ নদ, জমিদার বাড়ির আম্রকানন, বুড়োকাঠ বাদাম গাছ তলা, বিদায় ঘাটসহ মধুপল্ল্লী হাতছানি দিয়ে ডাকছে মধু ভক্তদের। মধুভক্ত লাখ লাখ মানুষের উপসি’তিতে মুখরিত হবে সাগরদাঁড়ির চারপাশ। বর্ণিল সাজে সেজেছে সাগরদাঁড়ি। সপ্তাহ ব্যাপী মেলা উপলক্ষে নেওয়া হয়েছে নানা কর্মসূচী। ইতিমধ্যে প্রশাসনের উদ্যোগে সকল প্রস’তি সম্পন্ন করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

মধু মেলার সপ্তাহ ব্যাপী কর্মসূচী থেকে জানা গেছে, শনিবার বিকেলে স’ানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন, এমপি প্রধান অতিথি হিসেবে মেলার উদ্বোধন করবেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপসি’ত থাকবেন মৎস্য ও প্রাণী সম্পদ মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী নারায়ন চন্দ্র চন্দ, এমপি, যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী ড. শ্রী বীরেন শিকদার, এমপি, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী ইসমাত আরা সাদেক, এমপি, সংসদ সদস্য শেখ আফিল উদ্দিন, মো. মনিরুল ইসলাম, কাজী নাবিল আহম্মেদ, রনজিৎ কুমার রায়, স্বপন ভট্টাচার্য্য, সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. ইব্রাহীম হোসেন খান, খুলনা বিভাগীয় কমিশনার লোকমান হোসেন মিয়া, যশোর জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সাইফুজ্জামান পিকুল, যশোর পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান, যশোর জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলন, সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদার, কেশবপুর উপজেলা চেয়ারম্যান এইচ এম আমির হোসেন, কেশবপুর পৌর মেয়র রফিকুল ইসলাম, সাংবাদিক শ্যামল সরকার।

মেলার দ্বিতীয় দিন ২১ জানুয়ারি “মধুসূদনের স্বদেশ চেতনা ও বাঙ্গালি জাতীয়তাবোধ” বিষয় ভিত্তিক আলোচনায় প্রধান অতিথি থাকবেন, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. আনোয়ার হোসেন, বিশেষ অতিথি থাকবেন, নজরুল ইন্সটিটিউটের নির্বাহী পরিচালক কবি মানিক মোহাম্মদ রাজ্জাক (যুগ্ম সচিব), যশোর এম এম কলেজের প্রাক্তন অধ্যক্ষ প্রফেসর নমিতা রানী বিশ্বাস। মেলার তৃতীয় দিন ২২ জানুয়ারী “মধুসূদনের আন-র্জাতিকতা ও আন-র্জাতিক বিশ্বে মধুসূদন” বিষয় ভিত্তিক আলোচনায় প্রধান অতিথি থাকবেন, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভাপতি মন্ডলির সদস্য শ্রী পিযুষ কানি- ভট্টাচার্য্য, বিশেষ অতিথি থাকবেন, ট্রেজারার, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় ও অধ্যক্ষ (অবসরপ্রাপ্ত) সরকারি বি এল কলেজ প্রফেসর সাধন রঞ্জন ঘোষ। মেলার চতুর্থ দিনে ২৩ জানুয়ারি “বাংলা কবিতায় আধুনিকতা ও মাইকেল মধুসূদন দত্ত” বিষয় ভিত্তিক আলোচনায় প্রধান অতিথি থাকবেন, যশোর জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সাইফুজ্জামান পিকুল, বিশেষ অতিথি থাকবেন, যশোর সরকারি এম এম কলেজের বাংলা বিভাগের অবসর প্রাপ্ত অধ্যাপক ড. মোস-াফিজুর রহমান। মেলার পঞ্চম দিন ২৪ জানুয়ারি “মধুসূদনের জীবন ও সাহিত্য” বিষয় ভিত্তিক আলোচনায় প্রধান অতিথি থাকবেন, যশোর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের প্রাক্তন চেয়ারম্যান প্রফেসর আমিরুল আলম খান। বিশেষ অতিথি থাকবেন, খুলনা বি এল কলেজের প্রাক্তন অধ্যাপক প্রফেসর আব্দুল মান্নান। মেলার ষষ্ঠ দিন ২৫ জানুয়ারি “মধুসূদন ও মেঘনাদবধ কাব্য” বিষয় ভিত্তিক আলোচনায় প্রধান অতিথি থাকবেন, যশোর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর মোহাম্মদ আব্দুল আলীম, বিশেষ অতিথি থাকবেন, খুলনা সরকারি আজম খান কমার্স কলেজের প্রাক্তন অধ্যাপক অসিত বরণ ঘোষ। মেলার শেষ দিন ২৬ জানুয়ারি মহাকবি মধুসূদন পদক প্রদান ও সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন, খুলনা বিভাগীয় কমিশনার লোকমান হোসেন মিয়া। বিশেষ অতিথি থাকবেন, যশোর পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান, বিপিএম, পিপিএম (বার), যশোর সিভিল সার্জন ডা. দিলীপ কুমার রায়, যশোর জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলন।

মেলা উপলক্ষে এলাকায় ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা দেখা দিয়েছে। এলাকাবাসী অতিথি দাওয়াতও করেছেন বলে জানা গেছে। সাগরদাঁড়ির পাশের গ্রাম আওয়ালগাঁতি গ্রামের তুহিন রেজা বলেন, মেলা উপলক্ষে তার বোন ভগ্নীপতিদের দাওয়াত করেছেন। পৌরসভার ভবানীপুর গ্রামের গৃহবধূ শাহিদা সুলতানা জানান, তিনি তার বড় ভাই-ভাবীসহ ভাইপো-ভাইঝিদের দাওয়াত করেছেন। ইতিমধ্যে তিনি ২১ কেজি চালের গুঁড়া তৈরি করেছেন। খেজুরের রসে ভিজানো পিঠায় অতিথি আপ্যায়ণ করবেন বলে তার ওই চালের গুঁড়া তৈরি বলে জানান।

সাগরদাঁড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোস-াফিজুল ইসলাম মুক্ত জানান, মেলা উপলক্ষে এলাকাবাসীর ভেতর ব্যাপক হারে উৎসাহ উদ্দিপনা দেখা দিয়েছে। সাগরদাঁড়িসহ অন্য ইউনিয়নগুলোতেও চলছে নানা আয়োজন। বিশেষ করে খেজুরের রসে ভেজানো পিঠায় অতিথি আপ্যায়নে প্রস’তি নিয়ে চালের গুঁড়া তৈরিতে ব্যস- সময় পার করছেন গৃহবধূরা। সাগরদাঁড়িবাসী অতিথি আপ্যায়নে ইতিমধ্যে প্রস’তিও সম্পন্ন করেছে।

এবারের মেলায় কুঠির শিল্প, গ্রামীণ পসরার পাশাপাশি সার্কাসের আয়োজন থাকবে। এছাড়াও প্রতিদিন সাগরদাঁড়ির মধু মঞ্চে আলোচনার পাশাপাশি নাটক, কবিতা আবৃতিসহ মনোজ্ঞপূর্ণ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজনও থাকছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও মেলা উদ্‌যাপন কমিটির সদস্য সচিব মো. মিজানূর রহমান জানান, মেলা সুষ্ঠু ও সুন্দর ভাবে উদযাপনের লক্ষে ইতিমধ্যে সাগরদাঁড়িতে যাবতীয় কাজ সম্পন্ন করা হয়েছে।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful