Templates by BIGtheme NET
ব্রেকিং নিউজ ❯
Home / জাতীয় / ভারত ৬ ডলারে গ্যাস কিনলে আমরা কেন ১০ ডলারে: হাইকোর্ট

ভারত ৬ ডলারে গ্যাস কিনলে আমরা কেন ১০ ডলারে: হাইকোর্ট

ভারত ৬ ডলারে গ্যস কিনলে আমরা ১০ ডলারে কেন কিনব? গ্যাসের দাম বাড়ানোর প্রস্তাবের বিরুদ্ধে রিটের শুনানিতে একথা জানান হাইকোর্ট। তবে এ বিষয়ে কোন উত্তর দিতে পারেনি পেট্রাবাংলা ও এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন।এদিকে গ্যাসের দাম প্রায় দ্বিগুণ বাড়ানোর প্রস্তাব করে গণশুনানি স্থগিত চেয়ে করা রিটের শুনানি বুধবার (১৩ মার্চ) শেষ হয়েছে। এ বিষয়ে আদেশের জন্য আগামী ৩১ মার্চ দিন ঠিক করেছেন হাইকোর্ট।বিচারপতি এফআরএম নাজমুল আহসান ও বিচারপতি কেএম কামরুল কাদেরের হাইকোর্ট বেঞ্চে এ শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় গণশুনানিকে তামাশা (মকট্রায়াল) বলে মন্তব্য করেন রিটকারী আইনজীবী ব্যারিস্টার জ্যোতির্ময় বড়ুয়া।উল্লেখ্য, বুধবার (১৩ মার্চ) গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে বাম গণতান্ত্রিক জোট বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে। বুধবার (১৩ মার্চ) বেলা ১১টা থেকে শুরু হয়ে এখন পর্যন্ত রাজধানীর কাওরান বাজারের টিসিবি ভবনের সামনে এ বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হচ্ছে প্রতিদিন।তিনি বলেন, অত্যন্ত দুঃখের বিষয় হল, একটি বিশেষ মহলকে অনৈতিক সুবিধা দেয়ার জন্যই গ্যাসের দাম বৃদ্ধির প্রস্তাব করে গণশুনানির আয়োজন করা হয়েছে।তিনি আরও বলেন, তিতাস কিংবা আরও যেসব সংস্থা আছে তারা কোথাও দাম বাড়ানোর কারণ উল্লেখ করেনি। কেন তারা দাম বাড়াতে চাইছে তা বলেনি। এমনকি দাম বাড়ানোর কোন যৌক্তিকতাও উল্লেখ করেনি।তারা সেখানে ১০ ডলার করে গ্যাস আমদানির কথা বলেছেন। এ সময় আদালত প্রশ্ন করেন যেখানে ভারত বাইরে থেকে ৬ ডলারে গ্যাস আমদানি করে সেখানে আমরা কেন ১০ ডলারে গ্যাস আমদানি করছি।আদালতের এ প্রশ্নের কোনো উত্তর পেট্রোবাংলা কিংবা এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনের পক্ষে কেউ দিতে পারেনি। আমাদের বক্তব্য হল- দাম বাড়ানোর যৌক্তিকতা তাদের কোনো প্রস্তাবে নেই, তারা কোথাও দেখাতে পারেনি।এর আগে গ্যাসের দাম বৃদ্ধির জন্য বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি) আয়োজিত গণশুনানি স্থগিত চেয়ে কনজুমার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ক্যাব) পক্ষে হাইকোর্টে আবেদন করেন ব্যারিস্টার জ্যোতির্ময় বড়ুয়া।আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন রিটকারী আইনজীবী ব্যারিস্টার জ্যোতির্ময় বড়ুয়া, পেট্রোবাংলার পক্ষে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম এবং বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনের (বিইআরসি) পক্ষে এফএম মেসবাহ উদ্দিন শুনানি করেন।পরে ব্যারিস্টার জ্যোতির্ময় বড়ুয়া সাংবাদিকদের বলেন, গত বছর ১৬ অক্টোবর বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন গ্যাসের সঞ্চালন ও বিতরণ ফি বৃদ্ধি করে আদেশ দিয়েছিল। এ আদেশের বিরুদ্ধে আমরা রিট দায়ের করেছিলাম।

ওই রিটে আদালত রুল জারি করেছিলেন। ওই রুল পেন্ডিং থাকা অবস্থায় তারা আবারও গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির প্রস্তাব করে গণশুনানির জন্য নোটিশ প্রদান করেন। ওই নোটিশের কার্যকারিতা স্থগিত চেয়ে আমরা আবার একটি আবেদন করেছি। ওই আবেদনের শুনানি শেষ হয়েছে।

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful