Templates by BIGtheme NET
Home / জেলার খবর / আন্তঃনগর ট্রেন দুইটি সীমাহীন দুর্নীতির জালে বাধা

আন্তঃনগর ট্রেন দুইটি সীমাহীন দুর্নীতির জালে বাধা

 

50

নীলফামার  নিউজসোনারবাংলা ডট কম : বর্তমান সরকার দেশেরে উন্নয়নের সার্থে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার জন্য যখন ব্যাপক চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে এবং রেল মন্ত্রী মজিবুল হক বাংলাদেশের রেল বিভাগকে দুর্নীতি মুক্ত প্রতিশ্নতির মাধ্যমে সারা দেশে রেলের উন্নয়নে ডাবল লাইনের কাজসহ  প্রায় ৫০টি প্রকল্প হাতে নিয়েছে। এর মধ্যে ৩৫ টি প্রকল্পের কাজ চলমান। বাকী প্রকল্পের কাজ প্রক্রিয়াধিন রয়েছে। ঠিক সেই মুহুর্তে রেল বিভাগের কিছু অসাধু দুর্নীতি পরায়ন ব্যক্তিরা প্রতিদিন শত শত ট্রেন যাত্রীকে বিনা টিকেটে ট্রেনে তুলে নিয়ে সেই টিকেটের টাকা যাত্রীদের কাছ থেকে নিয়ে ভাগ বাটোয়ারা করছে। এমনকি প্রতিদিন লাখ লাখ টাকার মালামাল ব্যবসায়ীরা ট্রেনে আনানেওয়া করলেও সরকারী কোষাগাড়ে একটি টাকাও জমা হয় না। সব চলে যায় রেলের জিআরপি পুলিশ, এটেনডেন্স, গার্ড, টিটি ও রেলওয়ে নিরাপত্তা বিভাগের দুর্নীতি পরায়ন ব্যক্তিদের পকেটে। এভাবেই দীর্ঘদিন যাবত চলে আসছে চিলাহাটি ঢাকা রুটে চলাচলকারী আন্তঃনগর নীলসাগর এক্সপ্রেস ও চিলাহাটি রাজশাহীগামী তিতুমীর এক্সপ্রেস ট্রেন দুটি। এই দুর্নীতির দৃশ্য দেখে মনে হয় দেশে রেল বিভাগের কোন প্রশাসন নেই।

পত্যক্ষদর্শী ও ট্রেন যাত্রীসূত্রে জানা গেছে, নীলফামারী জেলার ডোমার উপজেলার চিলাহাটি থেকে দুটি আন্তঃনগর ট্রেন সরকারীভাবে চলাচল করছে। এর ফাকে চিলাহাটি থেকে খুলনাগামী একটি মেইল ট্রেন সকালের দিকে বে-সরকারী ভাবে দীর্ঘদিন যাবত চলে আসছে। চিলহাটি ডোমার নীলফামারীসহ পার্শবর্তী পঞ্চগড় ও ঠাকুগায়ের ট্রেন যাত্রীরা চিলাহাটি হয়ে ট্রেনে দীর্ঘদিন যাবত যাওয়া আসা করে। চিলাহাটি রেল স্টেশন থেকে সপ্তাহে ৬দিন রাজশাহী গামী তিতুমীর এক্সেপ্রেস ট্রেনটি দুপুর ১.৪০ মিনিটে চিলাহাটিতে প্রবেশ করে এবং ২.২০ মিনিটে রাজশাহীর উদ্দেশ্যে চলে যায়। ঢাকাগামী নীলসাগর এক্সপ্রেস ট্রেনটি প্রতিদিন সন্ধা ৬.২০ মিনিটে চিলাহাটিতে প্রবেশ করে এবং ছেড়ে যায় রাত ৯.২০ মিনিটে। এই দুইটি ট্রেনে টিকেট কাটা যাত্রীদের আসন না থাকলেও বিনা টিকের যাত্রীদের আসন থাকে ভিইপি যাত্রীদের কেবিনে।

এই ট্রেন দুটিতে এটেনডেন্স, জিআরপি পুলিশ ও রেলের নিরাপত্তা গার্ডকে টাকা দিলে আপনি যেকোন ধরণের অবৈধ কাজ করতে পারবেন।আপনার অবৈধ কাজে বাধা দেওয়ারমত কেউ নেই।  এভাবেই প্রতিদিন দুইটি ট্রেনে শতশত যাত্রী ও মালামাল বিনা টিকেটেই সীমিত টাকার মাধ্যমে আপনি আপনার নির্দিষ্ট স্থানে পৌছাতে পারবেন দুর্নীতি ব্যক্তিদের সহযোগীতায়। গত ২০/১১/২০১৬ ইং চিলাহাটির একজন শিক্ষক ঢাকাগামী নীলসাগর ট্রেনে চিলাহাটি আসছিলেন পথিমধ্যে নামাজের সময় হলে তিনি ট্রেনের নামায পড়ার বগিতে নামায আদায়ের জন্য গিয়ে দেখতে পান নামাযের রুমে ২০ থেকে ২৫ জন মহিলা বিনা টিকেটেই এটেনডেন্সের সহযোগীতায় নামায ঘরে বসে আছেন। সেই নামাযি প্রতিবাদ করলে এটেনডেন্স তরিঘরি করে সেই মহিলাদের ভিআইপির এয়ার কন্ডিশন রুমে তাদের বসার ব্যবস্থা করে দিয়ে তিনি সটকে পড়েন এই দৃশ্যটি দেখে অনেক যাত্রীবলেন টিকেট কেটেও বসার সিট নেই। অথচ বিনা টিকেটের যাত্রীদের এত কদর তাদেরকে এয়ার কন্ডিশন রুমে বসার স্থান হল।  সম্পাদনা : এস.এম. সাইফুল ইসলাম কবির

Social Media Sharing

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful